আব্দুল মোমেন (দিনাজপুর২৪.কম) করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় ও দুস্থ্য ১ হাজার পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ শুরু করেছেন দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার একাধিকবার শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা।
আজ সোমবার (১৮ মে) বেলা ১২টার সময় উপজেলার নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেন খানসামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ মাহবুব-উল ইসলাম। দুই সপ্তাহব্যাপী এই ত্রাণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে উপজেলার ১ হাজার পরিবারের মাঝে এসব খাদ্য সামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কাজ করবেন বিদ্যালয়টির সাবেক শিক্ষার্থীরা।
সাবেক শিক্ষার্থী পুলিশ কর্মকর্তা রবিউল চৌধুরী বলেন, ‘খানসামা উপজেলার নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের পাশে আমরা দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। সরকারের পাশাপাশি আমরা বিদ্যালয়ের বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা মিলে প্রায় ২ লাখ টাকা উত্তোলন করতে সক্ষম হয়েছি। এই টাকা দিয়ে আমরা দুই সপ্তাহব্যাপী উপজেলার বিভিন্ন গরীব ও দুস্থ্য পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী উপহার বাড়ি পৌঁছে দিব। প্রতিটি প্যাকেটে একটি পরিবারের জন্য ১৫ দিনের খাদ্য সামগ্রী উপহার আছে। আমরা দেশের পরিস্থিতি দেখে এই কার্যক্রম আরো বৃদ্ধি করতে পারি।’
নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ত্রাণ সমন্বয় কমিটির সদস্য সচিব ও সাবেক শিক্ষার্থী রাশেদ মিলন বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর একটা বড় সুযোগ। আমাদের নিজেদের কোন অর্থ না থাকলেও আমরা যখন সবাই একত্রিত হলাম তখন বিরাট একটা অর্থ আমাদের সংগ্রহ হলো। আমরা সেই অর্থ দিয়ে ১ হাজার পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার কাজ শুরু করেছি। নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিটি ব্যাচের শিক্ষার্থীদের এজন্য কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। তারা আমাদের ডাকে সাড়া দিয়েছেন।’
নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমি নিজেও এই বিদ্যালয়টির সাবেক শিক্ষার্থী। সারা দেশের করোনা পরিস্থিতিতে আমাদের স্কুলের বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা যেভাবে এগিয়ে এসেছে তা গোটা দেশের জন্য দৃষ্টান্ত হতে পারে। বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ১ হাজার পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী উপহার বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার যে চেষ্টা এটা খুবই ভালো একটি উদ্যোগ। যারা এই কাজের সাথে সম্পৃক্ত তাদের প্রতি আমার এবং আমাদের বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা।’
উদ্যোগটির প্রশংসা করে খানসামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ মাহবুব-উল ইসলাম বলেন, ‘সাবেক শিক্ষার্থীদের এরকম উদ্যোগ আমাদের অনেকের দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে পারে। সমাজে অনেকের অনেক কিছু থাকলেও বিপদের সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে না। কিন্তু নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা ১ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী উপহার দেওয়ার যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন এটি আমাদের কাছে খুবই ভালো লেগেছে। এই উদ্যোগটি আমাদের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। এ সময় তিনি দেশের অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোকেও এভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে কাজ করার আহবান জানান।’
খাদ্য সামগ্রী উপহার দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শ্রী জিতেন্দ্রনাথ রায়, বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. শফিকুল ইসলাম, ত্রাণ পরিচালনা কমিটির আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম শাহ ও অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ। এছাড়াও সাবেক শিক্ষার্থীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আব্দুর রাজ্জাক, ইব্রাহিম সরকার, প্রমথ রায়, একে আজাদ, মিলন দেব, আশরাফুল আলম রাসেল, লিটন দেবসহ প্রমুখ।