hili-dinajpur24নুরুন্নবী বাবু (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর ও হিলি রেলষ্টেশন সিসি টিভি এবং ফ্লাড লাইট স্থাপন করা হয়েছে। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের রংপুর আঞ্চলিক কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহরীয়ার আহমেদ চৌধুরী আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় এর উদ্বোধন করেন। এই প্রথম চোরাচালান, অনুপ্রবেশ ও অপরাধ প্রবণতা রোধে দিনাজপুরের হিলি সীমান্তে বিজিবির হিলি সিপি ক্যাম্পে আনুুষ্ঠানিকভাবে হিলি স্থলবন্দর ও হিলি রেলষ্টেশন সিসি টিভি এবং ফ্লাড লাইট স্থাপনের উদ্বোধন করা হয়। এসময় তার সাথে ছিলেন, বিজিবির দিনাজপুর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল জাকির হোসেন, জয়পুরহাট-২০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোস্তাফিজুর রহমান।
বিজিবি জানায়, বিজিবির হিলি সিপি ক্যাম্পে স্থাপিত কন্ট্রোলরুম থেকে সীমান্তের চোরাচালান, অনুপ্রবেশ ও অপরাধ প্রবণতা রোধে এই সিসিটিভি এবং ফ্লাড লাইট পরিচালনা করা হবে।
হিলি চেকপোস্ট গেটে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত অভ্যর্থনা ফলক উম্মোচনের পর ব্রিগেডিয়ার শাহরীয়ার সাংবাদিকদের বলেন, হিলি স্থলবন্দর ও হিলি সীমান্ত এলাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এলাকা। এই বন্দরের মাধ্যমে মালামাল আমদানি-রপ্তানি সহ পাসপোর্টে মানুষ পারাপার হয়ে থাকে। সীমান্তে আমাদের উপর যে অর্পিত দায়িত্ব আছে তা আরও সহজ হবে এই সিসিটিভি ও ফ্লাড লাইট স্থাপনের মাধ্যমে।
তিনি বলেন, উভয় সীমান্তের চোরাচালানীরা খুবই সক্রিয়। তাই চোরাচালান বন্ধ হলে সরকারের রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাবে, সেজন্য বিজিবি রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছে। সীমান্তে কি হচ্ছে- তা এই সিসিটিভি ও ফ্লাড লাইটের মাধ্যমে দেখা যাবে এবং ধারণ করা থাকবে। কেউ যদি অপরাধ করে পালিয়েও যায়, তার ছবি সংরক্ষিত থাকবে। পরে ছবি দেখে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। সীমান্তে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার দায়িত্ব বিজিবি’র।
এদিকে জয়পুরহাট-২০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোস্তাফিজুর রহমান জানান, হিলি সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে ১৮টি সিসি টিভি এবং ১০টি ফ্লাড লাইট স্থাপন করা হয়েছে। এসবের মাধ্যমে হিলি সীমান্তে চোরাচালান, অনুপ্রবেশ ও অপরাধ প্রবণতা শুণ্যে নামিয়ে আনা সম্ভব হবে এবং এরফলে আধুনিক সীমান্ত ব্যবস্থাপনা গড়ে উঠবে এই সীমান্তে।