স্বাস্থ্যের ৭৫ কর্মচারীর অবৈধ সম্পদের খোঁজ পেয়েছে দুদক। পুরোনো ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) দেশের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার যে খাত, খোদ সেই খাতই ভয়াবহ অস্বাস্থ্যকর হয়ে গেছে দুর্নীতির ভয়াল বিষের ছোবলে। বিভিন্ন রকম দুর্নীতি দেখে দেখে যারা অভ্যস্ত, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সেসব কর্মকর্তাও বিস্ময়ে হতবাক হয়ে গেছেন মানবসেবার মতো মহতী এ খাতে দুর্নীতির রকমফের দেখে; দুর্নীতিবাজদের বিপুল পরিমাণ বিত্ত-বৈভবের ফিরিস্তি দেখে। এর মধ্যে কিছু কিছু দুর্নীতি সিনেমা-নাটকের গল্পকেও হার মানায়। নিয়োগ-বদলি-পদোন্নতি, স্থাপনা নির্মাণ, যন্ত্রপাতি ক্রয়, ওষুধ ও সরঞ্জাম সরবরাহ, রোগীর সেবা- সর্বত্র ছোবল হেনেছে সর্বগ্রাসী দুর্নীতি, নজিরবিহীন অনিয়ম। এসবের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা কামিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও এর আওতাধীন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বড় বড় কর্মকর্তা থেকে শুরু করে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী পর্যন্ত। স্বাস্থ্য খাতে এমন ৭৫ দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা-কর্মচারীর খোঁজ পেয়েছে দুদক। তাদের বিরুদ্ধে চলছে অনুসন্ধান।

এরই ধারাবাহিকতায় ইতোমধ্যেই অভিযুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী ও তাদের স্ত্রী-সন্তান-স্বজনসহ অর্ধশতাধিক লোকের সম্পদের হিসাব চেয়েছে দুদক। অন্যদের সম্পদের হিসাব বিবরণী তলবের বিষয়টিও প্রক্রিয়াধীন, বলছে দুদক সূত্র। সব মিলিয়ে দুদকে চলছে স্বাস্থ্য খাতের শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে অভিযোগের অনুসন্ধান। -ডেস্ক