(দিনাজপুর২৪.কম)সড়ক ও রেল যোগাযোগ নিরাপদ ও ট্রাফিক নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ রেলওয়ে পূর্ব ও পশ্চিমাঞ্চলের ৬৭২টি লেভেল ক্রসিং আধুনিক করবে। বাংলাদেশ রেলওয়ে এজন্য দটি অঞ্চলের জন্য দু’টি পৃথক উন্নয়ন প্রকল্প প্রণয়ন করেছে। দুর্ঘটনা ও হতাহতের সংখ্যা কমানোর পরিকল্পনাও রয়েছে এতে। পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, উভয় প্রকল্পই চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য আগামীকাল সকালে অনুষ্ঠিতব্য একনেক বৈঠকে উপস্থাপন করা হবে। প্রকল্প দুটির মূল লক্ষ্য হলো- গেটকিপার নিয়োগ, মহাসড়কের লেভেল ক্রসিং-এ সিগন্যালিং সিস্টেম স্থাপন করে ৬৭২টি লেভেল ক্রসিং গেট আধুনিক করা। এতে সড়ক ও রেল যোগাযোগ উভয় ক্ষেত্রে চলাচলের সময় কমবে ও নিরাপদ হবে এবং ট্রাফিক হবে নির্বিঘ্ন।
বাংলাদেশ রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট প্রোফর্মা (ডিপিপি) অনুযায়ী এ অঞ্চলে ১২৪৫টি লেভেল ক্রসিং গেট রয়েছে। এর মধ্যে ৪৩৪টি গেট অনুমোদিত। আর ৮১১টি গেটের কোন অনুমোদন নেই। অধিকাংশ গেটে গেটকিপার ও প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নেই। এজন্য এসব স্থানে ঘনঘন দুর্ঘটনা ঘটছে। ৩৪৬টি অনুমোদিত গেটে গেট কিপার নিয়োগ দেয়া হবে। সেই সঙ্গে দুর্ঘটনা রোধে প্রয়োজনীয় উন্নয়ন করা হবে। এর মধ্যে ১৮৯টি অনুমোদিত এবং ১৫৭টি অননুমোদিত গেট রয়েছে।
অন্যদিকে বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলে মোট ১২৪৯টি লেভেলক্রসিং গেট রয়েছে। এর মধ্যে ৯৭৮টি গেট অনুমোদিত। বাকিগুলো অননুমোদিত। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এ অঞ্চলে ৩২৬টি গেট আধুনিক করা হবে। এর মধ্যে ২৭৩টি অনুমোদিত এবং ৫৩টি অননুমোদিত গেট রয়েছে। ২ প্রকল্পের আওতায় আউটসোর্সিং-এর মাধ্যমে ১৮৮৯ জন গেটকিপার নিয়োগ করা হবে। এরমধ্যে পূর্বাঞ্চলে ১০৩৮ জন এবং পশ্চিমাঞ্চলে ৮৫১ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।(ডেস্ক)