জো বাইডেন ও বরিস জনসন। পুরোনো ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার পর কানাডা, মেক্সিকো এবং যুক্তরাজ্যের শীর্ষ নেতার সঙ্গে ফোনালাপ করেছেন জো বাইডেন। গত বুধবার শপথ নেওয়া বাইডেন গত শুক্রবার ও শনিবারের মধ্যে এই তিন দেশের শীর্ষ নেতার সঙ্গে কথা বলেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম স্কাই নিউজের খবরে বলা হয়, গতকাল শনিবার জো বাইডেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে ফোন করেন। তার আগের দিন শুক্রবার তিনি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ও মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওবরাডোর।

জনসনের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন বাইডেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাইডেনের কিছু পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন জনসন। জলবায়ু প্রতিরোধ বিষয়ক চুক্তিতে ফিরে আসা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে হাত মিলিয়ে করোনা ভ্যাকসিন বিতরণ কর্মসূচিতে ঢোকায় বাইডেনের কাছে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তিনি।

অন্যদিকে, জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে বাইডেনের কথোপকথনের পরপর জানা যায় এ দুই বিশ্বনেতা সামনের মাসে সরাসরি সাক্ষাৎ করবেন। কানাডার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও জোরদার করতে দুই নেতা সামনের মাসে বৈঠক করবেন। এ সময় করোনা প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা গুরুত্ব পাবে। শুক্রবার ট্রুডোকে ফোন করার পর মেক্সিকোর আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওবরাডোরকে ফোন করেন বাইডেন।

গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণ করার পর বাইডেন দিনভর নানা আনুষ্ঠানিকতায় কাটান। সে দিন তিন পূর্বসূরি প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, জর্জ ডব্লিউ বুশ ও বিল ক্লিনটন এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে আর্লিংটন জাতীয় সমাধিস্থানে যান বাইডেন। শপথের আনুষ্ঠানিকতা সেরে প্রায় প্রতিদিন কোনো না কোনো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন তিনি। -ডেস্ক