(দিনাজপুর২৪.কম) ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক আরিফিন শুভ। ২০০৫ মডেলিং শুরু করেন তিনি। এরপর ২০০৭ সালে প্রথম মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘হ্যাঁ-না’ নাটকে অভিনয় করেন।

আর ২০১০ সালে খিজির হায়াত খান পরিচালিত ‘জাগো’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার বড় পর্দায় অভিষেক হয়। ময়মনসিংহ থেকে যেদিন ঢাকায় এসেছিলেন আরিফিন শুভ, সেদিন পকেটে ছিল মাত্র ২৫৭ টাকা।

পকেট ফাঁকা থাকলেও বুক পকেটের নীচে ছিল এক আকাশ স্বপ্ন। আরজে, মডেল, নাটক বহু কাঠখড় পুড়িয়ে ঢাকাই সিনেমার নায়ক হয়েছেন শুভ। কাজ করেছেন ২৩ থেকে ২৪টি সিনেমায়।

২০১৭ সালের ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য শুভ’র হাতে গতকাল রোববার (৮ ডিসেম্বর) উঠেছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের একমাত্র রাষ্ট্রীয় ও সর্বোচ্চ চলচ্চিত্র পুরস্কার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে গ্রহণ করেছেন সেরা অভিনেতার পুরস্কার।

প্রথমবারের মত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করে নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে শুভ বলেন, ‘কৃতজ্ঞতা এই শব্দটা ছাড়া আর কিছুই মাথায় আসছে না। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমার পুরো টিমসহ আমার সকল দর্শকদের জন্য আমার বিশেষ কৃতজ্ঞতা।

সেই সঙ্গে আরও একটা কথা মাথায় আসছে সেটা হলো দায়িত্বটা অনেক বেড়ে গেল।’ উল্লেখ্য, বর্তমানে ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমায় অভিনয় করে আলোচনায় আছেন এই অভিনেতা।