1. dinajpur24@gmail.com : admin :
  2. erwinhigh@hidebox.org : adriannenaumann :
  3. dinajpur24@gmail.com : akashpcs :
  4. jcsuavemusic@yahoo.com : andersoncanada1 :
  5. AnnelieseTheissen@final.intained.com : anneliesea57 :
  6. ArchieNothling31@nose.ppoet.com : archienothling4 :
  7. ArmandoTost@miss.wheets.com : armandotost059 :
  8. BernieceBraden@miss.kellergy.com : berniecebraden7 :
  9. maximohaller896@gay.theworkpc.com : betseyhugh03 :
  10. BorisDerham@join.dobunny.com : borisderham86 :
  11. self@unliwalk.biz : brandymcguinness :
  12. Burton.Kreitmayer100@creator.clicksendingserver.com : burton4538 :
  13. CathyIngram100@join.dobunny.com : cathy68067651258 :
  14. ChristineTrent91@basic.intained.com : christinetrent4 :
  15. ceciley@c.southafricatravel.club : clemmiegoethe89 :
  16. Concetta_Snell55@url-s.top : concettasnell2 :
  17. CorinneFenston29@join.dobunny.com : corinnefenston5 :
  18. anahotchin1995@mailcatch.com : damionsargent26 :
  19. marcklein1765@m.bengira.com : danielebramlett :
  20. rosettaogren3451@dvd.dns-cloud.net : darrinsmalley71 :
  21. cyrusvictor2785@0815.ru : demetrajones :
  22. Dinah_Pirkle28@lovemail.top : dinahpirkle35 :
  23. emmie@a.get-bitcoins.online : earnestinemachad :
  24. nikastratshologin@mail.ru : eltonmcphee741 :
  25. EugeniaYancey97@join.dobunny.com : eugeniayancey33 :
  26. Fawn-Pickles@pejuang.watchonlineshops.com : fawnpickles196 :
  27. vandagullettezqsl@yahoo.com : gastonsugerman9 :
  28. panasovichruslan@mail.ru : grovery008783152 :
  29. cruz.sill.u.s.t.ra.t.eo91.811.4@gmail.com : howardb00686322 :
  30. audralush3198@hidebox.org : jacintocrosby3 :
  31. shnejderowavalentina90@mail.ru : kathrin0710 :
  32. elizawetazazirkina@mail.ru : katjaconrad1839 :
  33. KeriToler@sheep.clarized.com : keritoler1 :
  34. Kristal-Rhoden26@shoturl.top : kristalrhoden50 :
  35. azegovvasudev@mail.ru : latricebohr8 :
  36. jarrodworsnop@photo-impact.eu : lettie0112 :
  37. papagena@g.sportwatch.website : lillaalvarado3 :
  38. cruz.sill.u.strate.o.9.18.114@gmail.com : lonnaaubry38 :
  39. lupachewdmitrij1996@mail.ru : maisiemares7 :
  40. corinehockensmith409@gay.theworkpc.com : meaganfeldman5 :
  41. shauntellanas1118@0815.ru : melbahoad6 :
  42. sandykantor7821@absolutesuccess.win : minnad118570928 :
  43. kenmacdonald@hidebox.org : moset2566069 :
  44. news@dinajpur24.com : nalam :
  45. marianne@e.linklist.club : noblestepp6504 :
  46. NonaShenton@miss.kellergy.com : nonashenton3144 :
  47. armandowray@freundin.ru : normamedlock :
  48. rubyfdb1f@mail.ru : paulinajarman2 :
  49. PorterMontes@mobile.marvsz.com : porteroru7912 :
  50. vaughnfrodsham2412@456.dns-cloud.net : reneseward95 :
  51. brandiconnors1351@hidebox.org : roccoabate1 :
  52. Roosevelt_Fontenot@speaker.buypbn.com : rooseveltfonteno :
  53. kileycarroll1665@m.bengira.com : sabinechampion :
  54. santinaarmstrong1591@m.bengira.com : sawlynwood :
  55. renewilda@kovezero.com : sherriunderwood :
  56. Sonya.Hite@g.dietingadvise.club : sonya48q5311114 :
  57. gorizontowrostislaw@mail.ru : spencer0759 :
  58. Jan-Coburn77@e-q.xyz : uzejan74031 :
  59. jcsuave@yahoo.com : vaniabarkley :
  60. teriselfe8825@now.mefound.com : vedalillard98 :
  61. online@the-nail-gallery-mallorca.com : zoebartels80876 :
সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন
ভর্তি বিজ্ঞপ্তি :
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত "বাংলাদেশ কারিগরি প্রশিক্ষণ ও অগ্রগতি কেন্দ্র" এর দিনাজপুর সহ সকল শাখায়  RMP, LMAFP. L.V.P,  Paramedical, D.M.A, Nursing, Dental পল্লী চিকিৎসক কোর্সে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ভর্তির শেষ তারিখ ২৫/১১/২০১৯ বিস্তারিত www.bttdc.org ওয়েব সাইটে দেখুন। প্রয়োজনে-০১৭১৫৪৬৪৫৫৯

১৬ কোটি মানুষকে মেরে ফেলতে পারবে না

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৮
  • ১ বার পঠিত

-ফাইল ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) অতীতের মতো সেনাবাহিনী নিরপেক্ষ ও কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন। গতকাল বিকালে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, গতকাল সারা দেশে সেনাবাহিনী নেমেছে। আমরা আশা প্রকাশ করেছি অতীতে সেনাবাহিনী একটা নিরপেক্ষ এবং কার্যকর ভূমিকা রেখেছে। আমরা সেই আশাকে পুনরাবৃত্তি করছি। তিনি বলেন, সেনাবাহিনী নামার পর এখনো কিছু ঘটনা ঘটছে। এটা একদমই অপ্রত্যাশিত। সেনাবাহিনীর যে একটা অতীত ইতিহাস আছে, বিগত দিনগুলোতে তারা যেমন ভূমিকা রেখেছেন, নিরপেক্ষতা রক্ষা করেছে।

আপনারা জনমত যাচাই করে দেখতে পারেন। জিজ্ঞেস করবেন তোমরা কি চাও? বলবে পরিবর্তন। এটা যদি সত্য হয় তাহলে একটি অর্থপূর্ণ ঐক্য হয়ে আছে জনগণের মধ্যে। ইনশাআল্লাহ ৩০শে ডিসেম্বর আমরা সেই রায়টা পাব যদি নির্বাচনকে বন্ধ করা না হয়। তিনি বলেন, সত্তরের নির্বাচনে পাকিস্তানিদের পরাজয় হয়েছিল। তারা পরাজয় মেনে নিতে চায়নি। সেই জিনিসটা মনে রাখতে হবে। আমরা ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় অর্জন করেছিলাম। যেটা এখন আমরা উদযাপন করি। তারা জনগণের ভোটাধিকারের ওপর আক্রমণ করেছিল। আমরা যুদ্ধ করে তাদেরকে পরাজিত করেছিলাম। তিনি আরো বলেন, নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণ তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করে। রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যারা থাকেন তারা জনগণের পক্ষের হয়ে দেশ শাসন করেন। আমরা অতীতে দেখেছি সুষ্ঠু নির্বাচন না হতে দেয়ার জন্য গণবিরোধী শক্তি চেষ্টা করে। কিন্তু ইতিহাস বলে সেই গণবিরোধী শক্তিকে আমাদের জনগণ পরাজিত করেছিল একবার না বারবার।

১৯৭১ সালে পরাজিত করলো। তারপর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন ১৯৯০ সালেও আমরা দেখালাম। তিনি বলেন, নির্বাচনকে বন্ধ করতে দেয়া যাবে না। জনগণ ঐক্যবদ্ধ হলে প্রশাসন ও তাদের বাহিনীরা (সরকারি দল) যারা নির্বাচন নষ্ট করার চেষ্টা করে, তারা বন্ধ করতে পারবে না। আমি বিশ্বাস করি তারা সেই পথে অগ্রসর হবে না। তারা তো এটা পারবে না। কিন্তু এর মাধ্যমে দেশের যে ক্ষতি করার চেষ্টা, এটাও তাদের করা উচিত না। দেশে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন হোক। ড. কামাল বলেন, আগামী তিন বছর পর ২০২১ সালে দেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি হবে। সেদিন আমরা যেন বলতে পারি এমন একটি সরকার আমরা পেয়েছি, যারা সুষ্ঠু ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছে। সেই কারণে আসন্ন নির্বাচনকে খুবই গুরুত্ব দেয়া উচিত। সবাইকে ভোট দিতে যাওয়া উচিত। সঠিকভাবে ভোট দেয়া উচিত। অতীতে আমরা দেখেছি- মানুষ ভোট দেয়ার সুযোগ পেয়েছে। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সঠিকভাবে ভোট দিয়েছে। আমি বিশ্বাস করি সেই ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি আবার ঘটবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ইনশাআল্লাহ আমরা শেষ পর্যন্ত নির্বাচনের মাঠে থাকব।
বিএনপির মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বরাবরই আমরা বলে আসছি সরকার ও নির্বাচন কমিশন যৌথভাবে নির্বাচনকে একটা প্রহসনে পরিণত করছে। এটা যে কোনো বিবেকবান মানুষ ভাবতেই পারে না যে এই ধরনের একটা নির্বাচন হতে পারে। নির্বাচনকে ক্রমশই তারা তামাশায় পরিণত করছে। সমাবেশে অনুমতির প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত পুলিশ আমাদের কোনো অনুমতি দেয়নি। সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল হোসেনের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেন, নির্বাচনে ভোটারদের নিরাপদে ভোট প্রদান ও সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরির জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে সেনাবাহিনী মাঠে নেমেছে। মহান মুক্তিযুদ্ধে অনন্য ভূমিকা পালনকারী আমাদের গর্ব সেনাবাহিনী বিশ্বব্যাপী শান্তি মিশনে কৃতিত্বের সঙ্গে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা পালন করে আসছে। দেশে নিরাপদ পরিবেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানে জাতি তাদের কাছে সেই ভূমিকাই প্রত্যাশা করে। দেশব্যাপী সেই পরিবেশ সৃষ্টির কঠিন দায়িত্ব সেনাবাহিনীর ওপর ন্যস্ত। দেশে একতরফা নির্বাচন অনুষ্ঠানের যে নীলনকশা চলছে, সেটা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী ও শুভবুদ্ধিসম্পন্ন কারো কাছেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

আর এটা হবে আত্মঘাতী। এমনটা হলে দেশ ও জাতি চরম ক্ষতির সম্মুখীন হবে। এই মুহূর্তে দেশবাসীর পাশে দাঁড়াবে দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী। সংবাদ সম্মেলনে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী, গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরামের জগলুল হায়দার আফ্রিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
অন্যদিকে দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ পেশাজীবী পরিষদের অপর এক আলোচনাসভায় ড. কামাল হোসেন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে সরকারি দলের উদ্দেশে বলেছেন, হুমকি দাও, তোমাদের হুমকিতে ভীত হয়ে যাব? আসো সামনা সামনি, আমি তোমাদের চ্যালেঞ্জ দিচ্ছি। ড. কামাল বলেন, যারা বলে দেশ বিভক্ত হয়ে গেছে আমি বলি তোমাদের মাথা বিভক্ত হয়ে গেছে।  ১৬ কোটি মানুষকে মেরে ফেলতে পারবে না। যারা হুমকি দাও তোমরা কাপুরুষ। কাপুরুষরা পেছন থেকে হামলা করে। এ সময় তিনি আওয়ামী লীগ নেত্রী মতিয়া চৌধুরীর একটি বক্তব্যের দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, এই দেশ মানুষের মালিকানায়। কোনো রাজার মালিকানায় না। স্বাধীন দেশে কেউ প্রজা নয়। তারা নাগরিক। যারা প্রজার কথা বলছেন মাথা ঠিক করে কথা বলেন। আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক। তিনি বলেন, আর মাত্র ৫ দিন আছে। আপনারা ভোটের মাধ্যমে দেখিয়ে দিন। আমাদের যেন কেউ আর প্রজা বলতে না পারে। আমরা প্রজা না। নাগরিকের দায়িত্ব আছে, কর্তব্যও আছে। দেশের মালিক হিসেবে আমাদের ভোটের অধিকার কাজে লাগাতে হবে। কারণ দেশের মালিক জনগণ। তিনি বলেন, অনির্বাচিতরা এখন দেশ শাসন করছে। এটা মেনে নিতে পারি না।  আমাদের যে ঐক্য আছে সেটা এগিয়ে নিতে হবে। কোনো স্বৈরাচার মালিকের হাতে দেশ দিবো না। পুলিশের আইজিপির উদ্দেশ্যে ড. কামাল বলেন,  বেআইনি আদেশ মানা অপরাধ। যারা বেআইনি আদেশ দিচ্ছেন তারা অনেক বড় অপরাধী। ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা ৩০শে ডিসেম্বর গুনে গুনে ভোট দিয়ে আসবেন। আপনার ভোট যাতে হাইজ্যাক, জালিয়াতি করতে না পারে। সভায় কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, সব জায়গায় আগে দেশ তৈরি হয়। তারপর সে দেশে সেনাবাহিনী হয়। কিন্তু বাংলাদেশে সেনাবাহিনী তৈরি হয়েছে আগে। এই সেনাবাহিনীর কাছে একটা চাওয়া জনগণ যাতে নিরাপদে ভোট দিতে পারে। যদি তারা নিরাপদে ভোট দিতে পারে তাহলে ভোট বিপ্লব ঘটে যাবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে কতটা দেউলিয়া হলে নায়ক-নায়িকাদের নির্বাচনের প্রচারণায় নামাতে পারে। এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মমতাজ। কিন্তু একটি নিরপেক্ষ নির্বাচনে সে ইউনিয়ন পরিষদেও জিততে পারবে না।
বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, ১৬ জন প্রার্থী কারাগারে আছেন। ৬ জনকে তফসিল ঘোষণার পর গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া ৮ জনকে অবৈধ করা হয়েছে। আর কয়েকজনকে অবৈধ করার কথা বলা হয়েছে। তিনি বলেন, ৮ আসনে ধানের শীষের কোনো প্রার্থী রইলো না। সরকারকে এই ৮টি আসন উপহার দেয়া হলো। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, কিছু লোক আজকে আমাকে বলল- স্যার আরেকটু ধৈর্য্য ধরুন।  আমরা ৩০শে ডিসেম্বর ফাইনাল খেলা দেখাবো। তাই আমি বলি আমাদের দাঁত কামড়ে সহ্য করতে হবে। তিনি বলেন, ৩০শে ডিসেম্বর ভোর চারটা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্রে থাকতে হবে। ভোটের হিসেব না নিয়ে ঘরে ফিরে যাওয়া যাবে না। নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ৩০শে ডিসেম্বর কারো জন্য নির্ভর না করে নিজেরা ভোট কেন্দ্রে যাবেন। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। মান্না বলেন, নির্বাচনের দিন ভোটে বাধা দেয়ার জন্য বাহিনীগুলোকে কোটি কোটি টাকা ঘুষ দিচ্ছে সরকার।
সংগঠনের সদস্য সচিব ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেনের সঞ্চলনা ও ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক এবং বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, প্রফেসর মাহবুব উল্লাহ, প্রফেসর মুস্তাহিদুর রহমান, ড্যাবের সভাপতি ডা. একেএম আজিজুল হক, প্রফেসর ড. ছদরুল আমিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদা দলের আহ্বায়ক এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, শিক্ষক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ সেলিম ভূইয়া, গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসিন মন্টু প্রমুখ। -ডেস্ক

নিউজট শেয়ার করুন..

এই ক্যাটাগরির আরো খবর