ইসমাইল হোসেন (দিনাজপুর২৪.কম) একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৪১ জামালপুর ৪ সরিষাবাড়ী আসনে কে হচ্ছেন আগামী দিনের  সরিষাবাড়ী উপজেলার ভাগ্যদূত। সরিষাবাড়ী বিভিন্ন চা স্টলের অতি সাধরণ জনগণের আলোচনার সুত্র থেকে জানা যায়, সরিষাবাড়ী বাসী এবারও হারাতে পারে নৌকা প্রতীক। কারণ নিজেদের রাজনৈতিক বৈরীতায় সৃষ্টি করা ফাঁদে নিজেরাই দিয়েছে পা। তাই নৌকার শুভাকাঙ্খীরা মনে করছেন। বঙ্গবন্ধুর আর্দশ হৃদয়ে লালন করে একজন আরেক জনের প্রতি হিংসাত্ব কাঁদামাটি ছুড়াছুড়ি না করে ঐক্যের বন্ধনে কাজ করা উচিত। তা না হলে সরিষাবাড়ী আঃ লীগের আর একবার গোলামি করতে হবে জাপার।  এদিকে নৌকার পালে বৈরী হাওয়া লেগেছে বলে ফুরফুরা মনে হালচাষ করতে চায় লাঙ্গল। ফলাতে চায় মরা বীজে শস্যদানা। যে দানার রসে থাকবে আঃ লীগের কষ্টে অর্জিত করা সৌরভ। কিন্তু ধানের শীর্ষ প্রতীকের ভক্তরা মনে করছেন। সরিষাবাড়ীতে আঃ লীগ যদি কোন প্রার্থীতা না পান তাহলে তাদের জন্য অর্ধেক বিজয়। কারণ লাঙ্গলকে হারানো তাদের কাছে পুতুল খেলা মাত্র। আর বিএনপি’র শুভকাঙ্খীরা বলেন। যদি নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠ্য নিরপ্রেক্ষ নির্বাচন দেন। তাহলে ধানের শীর্ষের প্রতি জনগণের আস্থা এবং ভালোবাসা কতটুকু আছে তার বর্হির প্রকাশ ঘটবে। ১৪১ জামালপুর ৪ সরিষাবাড়ী আসনে আঃ লীগ থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে আশাবাদী সরিষাবাড়ী উপজেলা আঃ লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুর রশীদ, সাবেক এমপি ডাঃ মুরাদ হাসান, সরিষাবাড়ী উপজেলা আঃ লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা, সহ সভাপতি প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান হেলাল, জাপা থেকে বর্তমান এ আসনের এমপি মামুনুর রশীদ জোয়াদ্দার এবং বিএনপি থেকে জামালপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীম। সরিষাবাড়ী উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন এবং ১ টি পৌরসভার সমস্ত জনগণের কাছে প্রার্থীরা তাদের দলীয় কর্মকান্ড তুলে ধরছেন এবং ভালোমন্দের বিচারের ভার বিজ্ঞ জনগণকেই দিচ্ছেন তারা।