-পুরনো ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। দিন দিন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। বিশ্বব্যাপী এ প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ১৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

করোনাভাইরাসের তথ্য-উপাত্ত নিয়ে কাজ করা যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত হালনাগাদ তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী ১৩ লাখ ১ হাজার ৫৪ জন মারা গেছে। এ ছাড়া এ ভাইরাসে বিশ্বব্যাপী আক্রান্ত হয়েছে ৫ কোটি ৩২ লাখ ৮৪ হাজার ৮৬৭ জন। আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩ কোটি ৪৩ লাখ ৯৪ হাজার ৭৮৪ জন।

সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত এবং ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বে প্রথমে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যু। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত ১ কোটি ৭ লাখ ২৭ হাজার ৮৮৫ জনে দাঁড়িয়েছে এবং ২ লাখ ৪৪ হাজার ৩০২ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পরে মৃতের সংখ্যায় সবচেয়ে বেশি রয়েছে ব্রাজিল ও ভারতের নাম। বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল দেশ ভারতে মোট আক্রান্ত ৮৭ লাখ ২৮ হাজারেরও বেশি মানুষ এবং মারা গেছেন ১ লাখ ২৮ হাজার ৬৬৮ জন। মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষতিগ্রস্ত দেশ ব্রাজিল। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ৫৮ লাখ ১০ হাজার ৬৫২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৬৪ হাজার ৭৩৭ জনের।

বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গতকাল শুক্রবার বাংলাদেশে আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যদিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ১৫৯ জনে। এছাড়া নতুন করে ১ হাজার ৭৬৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ৪ লাখ ২৮ হাজার ৯৬৫ জনে। গতকাল শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা সংক্রান্ত নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, দেশের সরকারি ও বেসরকারি ১১৫টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ৯৬৭টি এবং আগের নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৫৩৯টি। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ২৫ লাখ ১৫ হাজার ৩৩৯টি। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ০৫ শতাংশ। আর মোট পরীক্ষায় এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৭ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ।

নতুন যে ১৯ জন মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ১৩ এবং নারী ৬ জন। এখন পর্যন্ত মোট মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ৪ হাজার ৭৪১ জন বা ৭৬ দশমিক ৯৮ শতাংশ এবং নারী এক হাজার ৪১৮ জন বা ২৩ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মোট মৃত্যুর হার এক দশমকি ৪৪ শতাংশ।

এদিকে, করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন আরও ১ হাজার ৫১৯ জন। এ নিয়ে দেশে মোট সুস্থ ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৩৮৭ জনে। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮০ দশমকি ৭৫ শতাংশ।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ১৮ মার্চ দেশে প্রথম কোনো করোনা রোগীর মৃত্যু হয় বলে জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। -ডেস্ক রিপোর্ট