(দিনাজপুর২৪.কম) লক্ষ্মীপুরে ১০ টাকা চাওয়ায় নিজের শিশুসন্তানকে গলাটিপে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে এক পাষণ্ড মায়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মা স্বপ্না বেগমসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) সকালে নিজের ছেলেকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছেন বলে পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন স্বপ্না। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের নাম মো. কাউছার (৮)। কাউছার একই বাড়ির কাভার্ডভ্যান চালক মো. রাসেলের ছেলে ও লোকমানিয়া হাফিজিয়া মাদরাসার প্রথম শ্রেণির ছাত্র।

জানা গেছে, সোমবার (১৪ অক্টোবর) মধ্যরাতে সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের জালাল আহম্মদ হাওলাদার বাড়িতে স্বপ্না তার ছেলে কাউছারকে গলা টিপে শ্বাসরোধে হত্যা করে।

স্থানীয়রা জানান, গাড়ি চালক হওয়ায় বেশিরভাগ সময়ই নিহত কাউছারের বাবা রাসেল লক্ষ্মীপুরের বাইরে থাকেন। ঘটনার সময় শিশুটি তার মা স্বপ্নার কাছে ১০ টাকা চায়। এতে তাকে মারধর করা হয়। একপর্যায়ে স্বপ্না তাকে গলা টিপে ধরে। কিছুক্ষণ পরই কাউছার মারা গেছে বলে স্বপ্না চিৎকার দিয়ে কান্না শুরু করে। এর আগেও একটি মেয়ে সন্তান স্বপ্নার বাবার বাড়িতে রহস্যজনক কারণে মারা যায়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজিজুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।-ডেস্ক