neta-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) হোয়াইট হাউজের হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে বসতি স্থাপনের উদ্যোগ এগিয়ে নিচ্ছে ইসরাইল। দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বহুল বিতর্কিত এ ইস্যু সামনে এগিয়ে নিচ্ছেন। এর সঙ্গে বিরোধ বা আপত্তিমুলক আইনটিও তিনি কার্যকর করতে চান। এ আইন কার্যকর করা হলে পশ্চিমতীরে তার অতিরিক্ত বসতি স্থাপন বৈধতা পাবে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ আইনটি সম্পর্কে যে বিল আনা হয়েছে তা অবৈধ। হোয়াইট হাউজ এই বসতি নির্মাণ ইসরাইলের জন্য শান্তিপূর্ণ হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে। গত সপ্তাহে পশ্চিম তীরে অবৈধভাবে নির্মাণ করা বসতি ভেঙে দেয়ার নির্দেশ দেয় আদালত। এ নির্দেশের পর পার্লামেন্টের সদস্যরা বিলটি পার্লামেন্টে তোলার জন্য তীব্র চাপ সৃষ্টি করেছে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর ওপর। তবে জোটের অংশীদারদের দাবির প্রেক্ষিতে তিনি যদি এ বিলটি সামনে এগিয়ে আনেন তাহলে আন্তর্জাতিক নিন্দা ও যুক্তরাষ্ট্রের বন্ধু প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের নিন্দার মুখেও পড়তে পারেন। উল্লেখ্য, নেতানিয়াহুর জাতীয়তাবাদী জোটে রয়েছে সংখ্যাগরিষ্ঠ পশ্চিত তীরের বসতি স্থাপনকারী ও সমর্থকরা। গত সপ্তাহে এ বিষয়ের বিলটি পার্লামেন্টে উঠাতে তার শক্তিশালী মিত্র দ্য জিউস হোম চাপ সৃষিষ্ট করে। ফলে এ বিলটি মঙ্গলবারের মধ্যে পার্লামেন্টে ভোটে দেয়া হতে পারে। দ্য জিউস হোম বিশ্বাস করে, বন্ধু প্রেসিডেন্ট এখন ক্ষমতায়। ফলে পশ্চিম তীর নীতি পরিষ্কার করার এখনই সময় নেতানিয়াহুর। এর আওতায় থাকবে দখলীকৃত ভূখ-ে সম্ভাব্য সম্প্রসারণ করা। -ডেস্ক