(দিনাজপুর২৪.কম) উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে স্বদেশি ক্লাব অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছে ৩-২ ব্যবধানে হেরে বিদায় নিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল মেসি-নেইমার-সুয়ারেজরা। দ্বিতীয় লেগে বার্সা ২-০ ব্যবধানে হারায় দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যবধানে জিতে শেষ চারে পৌঁছে গেছে অ্যাটলেতিকো মাদ্রিদ।

বুধবার দিবাগত রাতে ঘরের মাঠে দারুণ দলগত পারফরম্যান্স দেখায় দিয়েগো সিমিওনির শিষ্যরা। তার ফল হিসেবেই চ্যাম্পিয়নদের বিদায় করে দিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট পেয়েছে তারা।

ঘরের মাঠে অবশ্য গোল পেতে বেশ খানিকটা সময় নেয় অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে হেড দিয়ে দারুণ এক গোল করে দলকে এগিয়ে নেন গ্রিজমান (১-০)। এরপর ৮৭ মিনিটে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় ইনিয়েস্তা দলের জন্য সমূহ বিপদ ডেকে আনেন। ডি বক্সের মধ্যে হ্যান্ডবল করেন তিনি। রেফারি তাকে হলুদ কার্ড দিয়ে তিরস্কার করার পাশাপাশি অ্যাটলেটিকোকে পেনাল্টি উপহার দেন। পেনাল্টি থেকে দ্বিতীয় গোল করে বার্সেলোনার পরাজয়ের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠোকেন গ্রিজমান (২-০)।

ম্যাচে অবশ্য প্রায় সব দিক দিয়েই এগিয়ে ছিল বার্সেলোনা। বলের ৭৭ শতাংশ দখল ছিল তাদের কাছে। অন টার্গেটে ১৩টি শট নিয়েছিল কাতালানরা। তার ৪টি ছিল একেবারে গোলমুখে। অন্যদিকে অন টার্গেটে ৯টি শট নিয়েছিল অ্যাটলেটিকো। যার ৬টি ছিল গোলমুখে। অ্যাটলেটিকো যেখানে ১টি কর্নার কিক পেয়েছে, সেখানে এরিকের শিষ্যরা পেয়েছে ৪টি। কিন্তু সেগুলো থেকে কোনো সুবিধা আদায় করে নিতে পারেনি। উভয় দলের খেলোয়াড়রা ৪টি হলুদ কার্ডের দর্শন পেয়েছেন। তবে ফাউলের দিক দিয়ে এগিয়ে ছিল অ্যাটলেটিকো। ম্যাচে বার্সা যেখানে ১০টি ফাউল করেছে, সেখানে স্বাগতিকরা করেছে তার দ্বিগুণ। -ডেস্ক