মো. নুরুন্নবী বাবু (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের হাকিমপুরে হিলিস্থলবন্দর এলাকার সড়কগুলির পাশে প্রয়োজনীয় ড্রেনেজ ব্যবস্থা গড়ে না উঠায় সামান্য বৃষ্টিতেই সড়কগুলির উপরে  পানি জমে থাকায় কার্পেটিং ও খোয়া উঠে গিয়ে বড় বড় খানা-খন্দের সুষ্টি হয়েছে। এতে যানবাহন ও পথচারিরা চলছে জীবনের চরম ঝুঁকি নিয়ে। কর্তৃপক্ষ উদাসিন। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় , দিনাজপুর সড়ক ও জনপদ বিভাগের (সওজ) আওতাধীন হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানিকৃত পণ্য পরিবহনের একমাত্র  সড়ক হিলি আইসিপি তিন মাথা মোড়  হতে হিলি চারমাথা  মোড় হয়ে উপজেলা পরিষদ গেট পর্যন্ত  সড়ক, উপজেলা এলজিইডি আওতাধীন হিলি চারমাথা-উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্্র সড়কের মুহড়াপাড়া পর্যন্ত ও হাকিমপুর পৌরসভা আওতাধীন হিলি-ইসমাইলপুর সড়কের কার্পেটিং ও খোয়া উঠে গিয়ে বড় বড় খানা-খন্দের সৃষ্টি হয়ে সড়কগুলি চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে প্রতিনিয়তই ঘটছে দূর্ঘটনা।  এর মধ্য হিলি চারমাথা মোড় হতে  উপজেলা পরিষদ গেট পর্যন্ত প্রয়োজনীয় ড্রেনেজ ব্যবস্থা  গড়ে না উঠায় সামান্য বৃষ্টিতেই সড়কগুলিন উপর পানি জমে থাকে। এছাড়াও হিলি তিন মাথা হতে চারামাথা মোড় পর্যন্ত সড়কটির পাশে প্রয়োজনীয়  ড্রেনেজ ব্যবস্থা গড়ে না উঠায় ভারত থেকে  বিভিন্ন প্রকার আমদানি ও রপ্তানিকৃত পণ্যবাহী ট্রাকগুলি ঝুঁকি নিয়ে চলছে।
এ ব্যাপারে দিনাজপুর জেলা সওজ’র নির্বাহী প্রকৌশলী (এক্সএন) সুরুজ মিয়া, হাকিমপুর ইউএনও আজাহারুল ইসলাম, উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রকৌশলী শামসুজ্জোহা ও হাকিমপুর পৌর মেয়র সাখাওয়াত হোসেন শিল্পীর নিকট জানতে চাইলে তারা অভিন্ন মত প্রকাশ করে  জানান, ক্ষতিগ্রস্থ সড়কগুলি ও ড্রেন নির্মানের জন্য টেন্ডার  আহ্বান সম্পন্ন হয়েছে, আগামী ৩/৪ মাসের মধ্য সড়কগুলি সংস্কার ও ড্রেন নির্মানের  কাজ শুরু হবে জানালেও  হিলি চারমাথা হতে উপজেলা পরিষদ গেট পর্যন্ত জন গুরুত্ব পূর্ন এ সড়কের পাশে আপাতত কোন ড্রেন নির্মানের পরিকল্পনা নেই বলে সওজ’র এক্্র এন সুরু মিয়া জানান।