(দিনাজপুর২৪.কম) প্রস্তাবিত অষ্টম জাতীয় বেতন কাঠামোতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের অবমূল্যায়নের প্রতিবাদে এবং বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল ঘোষণার দাবীতে রবিবার ৩ ঘন্টা কর্মবিরতি, অবস্থান ধর্মঘট ও স্বাক্ষর সংগ্রহ কর্মসূচি পালন করেছেন দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। রবিবার (২৩ আগষ্ট) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন ঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে এ কর্মসূচি পালন করেন হাবিপ্রবি শিক্ষকরা। অবস্থান ধর্মঘট চলাকালে বক্তব্য রাখেন হাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি ও কৃষি অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মো. আনিস খান, শিক্ষক সমিতির সদস্য সচিব প্রফেসর ড. এ.টি.এম শফিকুল ইসলাম, মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. মো. শাহাদাৎ হোসেন খান, কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের প্রফেসর কৃষিবিদ প্রফেসর ড. সাইফুল হুদা, উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব বিভাগের প্রফেসর প্রফেসর ড. মো. মামুনুর রশীদ, কৃষি বনায়ন ও পরিবেশ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. শোয়াইবুর রহমান, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক   মো. কুতুব উদ্দীন প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, বেতন কমিশন কর্তৃক প্রস্তাবিত পে-স্কেল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য চরম অপমানকর। শিক্ষকদের অবমূল্যায়ন করে দেশ কখনো উন্নতির দিকে যেতে পারে না।  এশিয়ার প্রায় দেশেই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল চালু আছে। অথচ বাংলাদেশে শিক্ষকদের বেতন স্কেল কয়েক ধাপ কমিয়ে তাদের মর্যাদা ক্ষুন্ন করা হচ্ছে। অবিলম্বে প্রস্তাবিত বেতন কাঠামো পুণঃনির্ধারণ করে শিক্ষকদের প্রাপ্ত মর্যাদা দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান বক্তারা ।  কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের কয়েক’শ শিক্ষক অংশ গ্রহণ করেন।