(দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের নতুন ডীন হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. মাহাবুব হোসাইন।

তিনি সহযোগী অধ্যাপক আদিবা মেহজাবিন নিতুর স্থলাভিষিক্ত হলেন। আগামী দুই বছরের জন্য তিনি এই দায়িত্ব পালন করবেন ।

রবিবার ( ১৯ জানুয়ারি ) সকাল ১০টায় মাহাবুব হোসাইন দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

সহাযোগী অধ্যাপক মাহাবুব হোসাইন পূর্বে ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং চেয়ারম্যান (বর্তমানেও দায়িত্ব করছেন) এবং সহকারী প্রক্টর হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

শিক্ষাজীবনে তিনি ১৯৯৬ সালে এসএসসি, ১৯৯৮ সালে এইচএসসি রাজশাহী বোর্ড থেকে পরবর্তীতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফলিত পদার্থবিদ্যা এবং ইলেকট্রনিক্স বিভাগ থেকে কৃতিত্বের সাথে অনার্স মার্স্টাস শেষ করেন।

পরবর্তীতে দক্ষিণ কোরিয়ার কিয়াংপুক ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে পিএইচডি এবং জাপানের তাহুকু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পোস্ট ডক্টোরাল গ্রহণ করেন । এ পর্যন্ত দেশি বিদেশি জার্নালে তার ১৫টিরও বেশি গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশ পেয়েছে ।

কর্মজীবনের শুরুতে তিনি ২০০৭ সালে প্রাইম বিশ্ববিদ্যালয়ে ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রভাষক হিসাবে যোগদান করেন এবং পরবর্তীতে ২০০৮ সালে হাবিপ্রতিতে ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে প্রভাষক হিসাবে যোগদার করেন। পরবর্তীতে সহকারী ও সহযোগী অধ্যাপকে উন্নিত হন ।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রালয়ের অধীনে কৃষি ক্ষেত্রে সেন্সর প্রযুক্তির ব্যবহার বিষয়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের আইআরটির অধীনে সৌর প্রযু্িক্ত বিষয়ক প্রজেক্ট চলমান রয়েছে । তিনি এখন পর্যন্ত ৬টি দেশে ভ্রমণ করেছেন।

ডীন হিসাবে নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করার ব্যাপারে সহযোগী অধ্যাপক মাহাবুব হোসাইন বলেন, শিক্ষা ও গবেষণার ক্ষেত্র তৈরি করাই ডীন হিসেবে আমার প্রথম কাজ । সকলের সহযোগীতা আমি শিক্ষার উন্নয়ন, গবেষণার বিস্তার ও ল্যাবের উন্নয়ন ঘটানো জন্য সবোর্চ্চ চেষ্টা করবো। বাংলাদেশ সরকারে যে রূপকল্প ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপায়ণের জন্য সিএসই অনুষদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে । এই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার একটা অংশ ও কিছু অবদান রাখার জন্য আমার জায়গা থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।

ডীন হিসাবে দায়িত্ব দেওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলরের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।