এম.এ সালাম (দিনাজপুর২৪.কম) হাবিপ্রবিতে পরীক্ষা দিতে আসাকে কেন্দ্র করে টিকেট কালোবাজারীরা আবারও মাঠে দেখা গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মিলছে না ট্রেনের টিকেট ২ থেকে ৫ ডিসেম্বর হাবিপ্রবিতে পরীক্ষা চলবে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে রেলওয়ের টিকেট কালোবাজারীরা মাঠে নেমেছে। কাউন্টারে কোন ট্রেনের টিকেট মিলছে না।
বাংলাদেশ রেলওয়ে দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশন টিকেট কালোবাজারী ফরিয়াদের দখলে, নেওয়া হচ্ছে না কোন প্রকার কার্যকরী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা। সবই হচ্ছে স্টেশন প্রশাসনের সামনে সিসি ক্যামরায় বসে তামাশা দেখছেন তারা। টিকেট দেওয়ার কথা বলে টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনাও ঘটছে অহরহ। দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের তরফ থেকে দিনাজপুর শহর জুড়ে মাইকে বলা হয় দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণকারী ছাত্র ছাত্রীদের রাত্রী যাপনের বোডিং, খাবার হোটেল বেশি দাম নেওয়া সহ বিভিন্ন প্রকার হয়রানি যাতে না করা হয় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পরীক্ষার্থী ছাত্র ছাত্রীদের যাতে কোন প্রকার অসুবিধার সৃষ্টি না হয়। অসুবিধার সৃষ্টি হলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে মর্মে জানিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু দিনাজপুর রেল স্টেশন প্রশাসন এর তরফ থেকে এখন কোন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। আন্তঃনগর ট্রেনে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য ছাত্র ছাত্রী ও অভিভাবকগণ দিনাজপুরে এসেছেন। আবারও পরীক্ষা শেষে তারা নিজ নিজ এলাকায় ফিরে যাবেন। দিনাজপুর আন্তঃনগর ট্রেনের টিকেট কাউন্টারের সামনে সকাল থেকে রাত্রী ১১টা পর্যন্ত কাউন্টার টিকেট কালোবাজারী ফরিয়াদের দখলে থাকছে। ফলে যাত্রী সাধারন প্রতিনিয়ত অতিরিক্ত টাকা এবং টকবাজদের খপ্পরে পড়ছেন। ট্রেনযাত্রীদের অভিযোগ উঠেছে দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশন প্রশাসন রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী আরএনবি এবং জিআরপি পুলিশের সামনে এ সকল টিকেট কালোবাজারী ঠকবাজদের নাকি উৎসব চলে। তারা কোন প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেন না বলে জানান এক ভুক্তভোগী যাত্রী। এ ব্যাপারে দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশন ভারপ্রাপ্ত এসএস কে মোবাইল ফোনে পাওয়া যায়নি। জিআরপি থানার ওসি তদন্তকে জানানো হলে, তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।