(দিনাজপুর২৪.কম) হুট করেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন শহিদ খান আফ্রিদি। এত শেষ হলো পাকিস্তান ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলোয়াড়ের ২১ বছরের জমকালো আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার। তবে ক্লাব পর্যায়ে ক্রিকেট চালিয়ে যাবেন বলে জানালেন তিনি। ২০১০ সালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেন ৩৬ বছর বয়সী এ তারকা। এর পাঁচ বছর বাদে ২০১৫ বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে থেকে অবসর নেন বুমবুম আফ্রিদি। খেলা চালিয়ে যাচ্ছিলেন শুধু টি-টোয়েন্টিতে। গত বছর পর্যন্তও পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক ছিলেন তিনি। কিন্তু ভারতের অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ব্যর্থতার পর নেতৃত্ব ছাড়েন আফ্রিদি। এরপর আর দলে ফিরতে পারেননি। এরই মধ্যে অবসর নিয়ে কয়েকবার নাটকের জন্ম দিয়েছেন। কিন্তু চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেননি। পাকিস্তান দলে ফেরার ব্যাপারে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন তিনি। তবে এবার হুট করেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকেও অবসর নিয়ে ফেললেন তিনি। পাকিস্তান সুপার লীগে (পিএসএল) পেশোয়ার জালমির আইকন খেলোয়াড় আফ্রিদি। রোববার করাচি কিংসের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। করাচির ১৭৫ রান তাড়া করতে নেমে আফ্রিদি আট নম্বরে ব্যাটে নেমে ৫ ছক্কা ও ৩ চারে ২৮ বলে খেলেন ৫৪ রানের ইনিংস। তবে তারপরও তার দল হেরে যায় ৯ রানে। দুর্দান্ত ওই ইনিংস খেলে ফিরেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন ইতিহাসের অন্যতম সেরা এ অলরাউন্ডার। বলেন, ‘আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলছি। আমি সবসময় আমার ভক্তদের জন্য ক্রিকেট খেলি। লীগে সামনে আরো দুই বছর খেলা চালিয়ে যাবো। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালাম। এখন আমার কাছে আমার ফাউন্ডেশনটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।’ -ডেস্ক