(দিনাজপুর২৪.কম) নানা অব্যবস্থাপনায় জর্জরিত লাইসেন্সবিহীন রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে করোনার চিকিৎসার জন্য চুক্তি করা নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। একে অন্যকে দায়ী করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এমন অবস্থায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) আবুল কালাম আজাদ, অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা সুলতানাসহ ১০ থেকে ১২ জন কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

চলতি সপ্তাহে তাদের ডাকা হতে পারে দুদক সূত্রে জানা গেছে। রিজেন্টকাণ্ডে যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তাদের নামে চিঠিও তৈরি হচ্ছে বলে জানা গেছে।

গত ৯ জুলাই সংবাদ সম্মেলনে দুদকের সচিব দিলওয়ার বখত জানিয়েছিলেন, রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে ওঠা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ দুদক তদন্ত করবে। -ডেস্ক