(দিনাজপুর২৪.কম) নীলফামারীর সৈয়দপুরের কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের তেলিপাড়ার তিস্তা শাখা ক্যানেল থেকে গোলাপি (১৮) নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। যৌতুকের কারণে স্বামী ছুরিকাঘাতে স্ত্রীকে হত্যা করা হয়েছে বলে এলাকাবাসী জানায়। এ ঘটনায় পুলিশ তার স্বামীকে আটক করেছে।  জানা যায়, গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ির হরিণবাড়ী গ্রামের চাঁন মিয়ার কন্যা গোলাপি। ঢাকায় গার্মেন্টেসে চাকরী সূত্রে ভালবেসে ৭ মাস আগে বিয়ে করেন নীলফামারী সদরের চাপড়া সরমজানি ইউনিয়নের নয়াপাড়ার নূর হোসেনের পুত্র আহসান হাবিব ওরফে তুফান (২৪) কে। যৌতুক নিয়ে প্রায় তাদের মধ্যে ঝগড়া হত। বুধবার সন্ধ্যায় শ্বশুরবাড়ি থেকে বাড়ি আসার সময় খিয়ারজুম্মায় নেমে বাড়ির উদ্দেশে দুজনে রওয়ানা দেন। পথিমধ্যে সৈয়দপুর উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের তেলিপাড়া এলাকায় স্ত্রী ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে পাশের তিস্তার শাখা ক্যানেলে ফেলে রাখেন। এবং স্ত্রীকে দুর্বৃত্তরা হত্যা করেছে স্বামী গায়ে কাঁদামাটি মেখে রাস্তায় চেঁচামেচি করতে থাকেন।
খবর পেয়ে থানা পুলিশ রাত সাড়ে ১১টায় গোলাপির লাশ উদ্ধার করে এবং স্বামী আহসান হাবিবকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় নীলফামারী মর্গে পাঠানো হয়েছে।
এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন জানান, লাশ ময়না তদন্ত শেষে রিপোর্ট অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।