1. dinajpur24@gmail.com : admin :
  2. erwinhigh@hidebox.org : adriannenaumann :
  3. dinajpur24@gmail.com : akashpcs :
  4. AnnelieseTheissen@final.intained.com : anneliesea57 :
  5. self@unliwalk.biz : brandymcguinness :
  6. ChristineTrent91@basic.intained.com : christinetrent4 :
  7. rosettaogren3451@dvd.dns-cloud.net : darrinsmalley71 :
  8. Dinah_Pirkle28@lovemail.top : dinahpirkle35 :
  9. emmie@a.get-bitcoins.online : earnestinemachad :
  10. EugeniaYancey97@join.dobunny.com : eugeniayancey33 :
  11. vandagullettezqsl@yahoo.com : gastonsugerman9 :
  12. cruz.sill.u.s.t.ra.t.eo91.811.4@gmail.com : howardb00686322 :
  13. azegovvasudev@mail.ru : latricebohr8 :
  14. corinehockensmith409@gay.theworkpc.com : meaganfeldman5 :
  15. kenmacdonald@hidebox.org : moset2566069 :
  16. news@dinajpur24.com : nalam :
  17. marianne@e.linklist.club : noblestepp6504 :
  18. NonaShenton@miss.kellergy.com : nonashenton3144 :
  19. armandowray@freundin.ru : normamedlock :
  20. rubyfdb1f@mail.ru : paulinajarman2 :
  21. vaughnfrodsham2412@456.dns-cloud.net : reneseward95 :
  22. Roosevelt_Fontenot@speaker.buypbn.com : rooseveltfonteno :
  23. Sonya.Hite@g.dietingadvise.club : sonya48q5311114 :
  24. gorizontowrostislaw@mail.ru : spencer0759 :
  25. jcsuave@yahoo.com : vaniabarkley :
বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
নতুন রুপে আসছে দিনাজপুর২৪.কম! ২০১০ সাল থেকে উত্তরবঙ্গের পুরনো নিউজ পোর্টালটির জন্য দেশব্যাপী সাংবাদিক, বিজ্ঞাপনদাতা প্রয়োজন। সারাদেশে সংবাদকর্মী নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা এখনই প্রয়োজনীয় জীবন বৃত্তান্ত সহ সিভি dinajpur24@gmail.com এ ইমেইলে পাঠান।

সু চি’র সাথে আলোচনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফিরিয়ে না নিলে জঙ্গিবাদ ছড়াতে পারে

  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৫ অক্টোবর, ২০১৭
  • ১ বার পঠিত

(দিনাজপুর২৪.কম) জিরো টলারেন্স নীতির কারণে বাংলাদেশ কোনো সন্ত্রাসীকে প্রশ্রয় দেয় না উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মিয়ানমার থেকে অনুপ্রবেশকারীদের (রোহিঙ্গা) দ্রুত ফিরিয়ে না নিলে তাদের অনেকেই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদে জড়িয়ে যেতে পারে। তখন পরিস্থিতি বাংলাদেশ বা মিয়ানমার- কারো অনুকূলে থাকবে না।

আজ বুধবার মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডোতে দেশটির রাষ্ট্রীয় পরামর্শক ও ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ নেতা অং সান সু চি’র সাথে সাক্ষাতকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ আশঙ্কা ব্যক্ত করেন।

দশ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সকালে সু চি’র সাথে সাক্ষাত করেন। প্রায় এক ঘণ্টা তাদের মধ্যে কথা হয়।

সাক্ষাতকালে সু চি বলেন, বাংলাদেশে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের ফিরিয়ে নিতে তার সরকার কাজ শুরু করেছে। রাখাইন সঙ্কট নিরসনে কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নেও মিয়ানমার কাজ করছে।

মিয়ানমার থেকে ইয়াবার মত মাদক বাংলাদেশে পাচারের ভয়াবহ রূপ সু চি’র কাছে তুলে ধরেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ ব্যাপারে সু চি বলেন, মিয়ানমারের যুব সমাজও ইয়াবায় আসক্ত হয়ে পড়েছে। বাংলাদেশে ইয়াবা পাচার বন্ধে তার সরকার সীমান্ত বন্ধ করে দেবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সু চিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। দুই দেশের সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফর করবেন বলে সু চি জানান।

আগের দিন দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সচিব পর্যায়ের বৈঠকে নেয়া সিদ্ধান্তগুলো সম্পর্কে সু চিকে অবহিত করেন আসাদুজ্জামান খান কামাল। এসব সিদ্ধান্তের ব্যাপারে একমত পোষণ করেন সু চি।

বৈঠকের পর মিয়ানমার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পার্মানেন্ট সেক্রেটারি স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশ যত দ্রুত সম্ভব প্রত্যাবাসন চায়। কিন্তু আমরা জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করে ধাপে ধাপে এ প্রক্রিয়ায় অগ্রসর হতে চাই।

অন্যদিকে মিয়ানমারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পার্মানেন্ট সেক্রেটারি বলেছেন, রাখাইন রাজ্যে প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ ও উদ্বাস্তুদের পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার পরিকল্পনা আমরা এখনো হতে নেয়নি। এসব কাজ করবে রাজ্য কর্তৃপক্ষ। এ প্রক্রিয়া কখন শেষ হবে তা আগে থেকে বলা কঠিন।

নেপিডোতে গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের তাগাদা দিয়েছে বাংলাদেশ। ২ অক্টোবর ঢাকা সফরকালে সু চি’র দফতরের ইউনিয়নমন্ত্রী টিন্ট সোয়ের সাথে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আলাপকালে দুই দেশ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়। ঢাকা থেকে ফিরে গিয়ে সু চি’র দফতর থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে জানানো হয়, মিয়ানমার ১৯৯২ সালে দুই দেশের যৌথ ঘোষণার নীতি অনুসরণ করে যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া শেষে রোহিঙ্গাদের ফেরত নেবে। কিন্তু টিন্ট সোয়ের সাথে আলাপকালে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের যে খসড়া চুক্তি মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর করেছিল তাতে ১৯৯২ সালে যৌথ ঘোষণার ভিত্তিতে বর্তমান প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে কয়েকটি সংশোধনী আনা হয়েছিল। এছাড়া বাংলাদেশ যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতার জন্য জাতিসঙ্ঘ সংস্থাগুলোর অন্তর্ভুক্তি চেয়েছে। বাংলাদেশের প্রস্তাবের ব্যাপারে মিয়ানমার এখনো কোনো মতামত জানায়নি। তবে যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়ায় তৃতীয় পক্ষের অন্তর্ভুক্তির ব্যাপারে তাদের আপত্তির কথা জানিয়েছে।

নেপিডোতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক শেষে দুই দেশের মধ্যে নিরাপত্তা সহযোগিতা ও সংলাপ এবং সীমান্ত লিয়েজোঁ অফিস স্থাপনে দু’টি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই হয়েছে। এছাড়া এতে নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠান, তথ্য বিনিময় ও সীমান্তে আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। বৈঠকে রাখাইন রাজ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর আক্রমণের সাথে জড়িত সন্দেহভাজনদের একটি তালিকা বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। মিয়ানমারের ধারণা তারা বাংলাদেশে পালিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে তদন্ত করে তালিকাভুক্ত ব্যক্তিদের আটক ও ফেরত দেয়ার জন্য বাংলাদেশের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে মিয়ানমার।

মিয়ানমার কালক্ষেপণের প্রক্রিয়া অনুসরণ করে ২০০৫ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাকেও ফেরত নেয়নি। গত ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গাদের ওপর নজীরবিহীন দমন-পীড়ন শুরু হলে দুই মাসে ছয় লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। আর বিভিন্ন সময়ে নিপীড়নের কারণে আগে থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছিল প্রায় চার লাখ রোহিঙ্গা। সব মিলিয়ে বাংলাদেশ প্রায় দশ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিতে গিয়ে সঙ্কটের মধ্যে পড়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দীন আহমেদ চৌধুরী, আইজিপি এ কে এম শহিদুল হক, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক রিয়ার এডমিরাল এ এম এম আওরঙ্গজেব চৌধুরী, মিয়ানমারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুফিউর রহমানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ছিলেন। -ডেস্ক

নিউজট শেয়ার করুন..

এই ক্যাটাগরির আরো খবর