(দিনাজপুর২৪.কম) সিরিয়ায় ১০ বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধ চলাকালীন বন্দী হয় লাখো বেসামরিক লোক। সেসব লোক ‍এখনো নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের তদন্তকারীরা।

তাদের দেওয়া নতুন একটি প্রতিবেদনে যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী সব দলের মাধ্যমে সংঘটিত যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের বিস্তারিত অভিযোগ তুলে ধরা হয়েছে। কয়েক হাজার বন্দীকে নির্যাতন করা হয়েছে বা হত্যা করা হয়েছে বলেও ওই প্রতিবেদনে বলা হয়।

বন্দীদের নির্যাতিতদের মধ্যে ১১ বছর বয়সী পর্যন্ত বালক ও বালিকাদের ধর্ষণের মতো ঘটনাও আছে। এসব ঘটনা ‘জাতীয় মানসিক আঘাত’ হয়ে আছে এবং এগুলোকে অবশ্যই চিহ্নিত করতে হবে বলে ওই প্রতিবেদনে বরাত ‍দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের মার্চ মাসে সরকারবিরোধী শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দমাতে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সরকার মারাত্মক শক্তি প্রয়োগ করলে গৃহযুদ্ধ শুরু হয়, তাতে সিরিয়া বিধ্বস্ত হয়ে যায়। সেই লড়াইয়ে অন্তত তিন লাখ ৮০ হাজার লোকের মৃত্যু হয় এবং দেশটির জনসংখ্যার অর্ধেক বাড়ি ছেড়ে পালতে বাধ্য হয়েছিল। -ডেস্ক