girl-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে দ্বিতীয় শ্রেণির এক শিশু ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। গুরুত্বর অবস্থায় শিশুটিকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার রাত আটটার দিকে কামারখন্দের রায়দৌলতপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। ধর্ষক একই গ্রামের আব্দুস কুদ্দুসের ছেলে ইয়াকুব আলী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ৫ বছর আগে স্ত্রীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় কামারখন্দ উপজেলার রায় দৌলতপুরে গ্রামের সুরমান আলী মেয়েকে নিয়ে আলাদা হয়ে যান। এরপর থেকে একমাত্র মেয়েকে সে নিজেই আগলে রাখেন। নয় বছর বয়সী মেয়েটি বর্তমানে রায়দৌলতপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ত। বুধবার রাতে বাড়িতে কেউ না থাকায় লম্পট ইয়াকুব টিভি দেখার কথা বলে বাড়িতে ঢুকে পড়ে। ঢুকেই মেয়েটিকে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে রক্তাক্ত অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়। রাতে তার বাবা বাড়িতে ফিরে মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে সকালের দিকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।

কামারখন্দ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাবুল সর্দার জানিয়েছেন, ধর্ষক ইয়াকুবকে সকালে আটক করা হয়েছে। শিশুটির বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। -ডেস্ক