(দিনাজপুর২৪.কম) রাষ্ট্র প্রধান, রাজনীতিক, সেলিব্রেটি, ব্যবসায়ীদের কালো টাকার খবর ফাঁস হওয়ায় বিশ্বজুড়ে তোলপাড় চলছে। এরই মধ্যে ক্ষমতা হারিয়েছেন আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সিগমুন্ডুর ডেভিড গুনলাইগসন। বৃটিশ সাবেক প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের পরিবারের বিনিয়োগ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এ অবস্থায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে যে আইনী প্রতিষ্ঠানের নথি ফাঁস হয়েছে তারা বলেছে, তাদের সার্ভার বিদেশ থেকে হ্যাক করে এসব তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। মঙ্গলবার পানামার আইনী প্রতিষ্ঠান মোসাক ফনসেকার সঙ্গে যোগাযোগ করে এএফপি। জবাবে তারা সার্ভার হ্যাক হওয়ার কথা জানায়। এ প্রতিষ্ঠানের র‌্যামন ফনসেকা বলেছেন, তার প্রতিষ্ঠান মোসাক ফনসেকা এ বিষয়ে সোমবারই পানামায় মামলা করেছে। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত যত রিপোর্ট হয়েছে সেখানে কেউ বলে নি যে, এসব নথি হ্যাক করা হয়েছে। যা ঘটানো হয়েছে তা এক রকম ক্রাইম। তবে তিনি পরিষ্কার করে বলেন নি, কোন দেশ থেকে তাদের সার্ভার হ্যাক করা হয়েছে। তবে তাদের সার্ভার হ্যাক করে এক কোটি ১৫ লাখ নথি ফাস করায় বেশ ক্ষুব্ধ তারা। তিনি বলেছেন, তাদের ক্লায়েন্টের মধ্যে রয়েছেন বিভিন্ন পর্যায়ের উচ্চ পদস্থ ব্যক্তি। তারা তাদের আইনী প্রতিষ্ঠান ব্যবহার করে অপসোর কোম্পানির মালিক হয়েছেন। পানামা পেপারস ফাঁস হওয়াতে পানামার আর্থিক সেবাকাতে বড় ধাক্কা লেগেছে বলে বলা হচ্ছে।-ডেস্ক