(দিনাজপুর২৪.কম) মা-ইলিশ সংরক্ষণে অভিযান চালিয়েছে বাংলাদেশ নৌপুলিশ। এ সময় ১৩৮৯ কেজি ইলিশ ধরায় ১৯৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩টি থানা ও কেন্দ্র থেকে ২২ লাখ ৬৮ হাজার সাতশ মিটার কারেন্ট জালসহ ও অন্য জাল, ১৩৮৯ কেজি মা-ইলিশ, ৪৫টি নৌকা ও সাতটি ট্রলার জব্দ করেছে নৌপুলিশ।

নৌপুলিশের অতিরিক্ত এসপি ফরিদা বানু জানান, জব্দকৃত কারেন্ট জালের মূল্য প্রায় ছয় কোটি ৯০ লাখ ১৪ হাজার টাকা। অন্যদিকে জব্দকৃত মা-ইলিশ মাছের মূল্য ছয় লাখ ৪৪ হাজার ২৮ টাকা।

নৌ-পুলিশ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরিদা পারভীন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফরিদা পারভীন জানান, সারা দেশে নৌ-পুলিশের ১১৬টি থানা ও কেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে ৪৩টি থানা ও কেন্দ্র এলাকায় গতকাল বুধবার থেকে ২৪ ঘণ্টার অভিযানে এসব জাল ও মা ইলিশ জব্দ করা হয়েছে। একই সঙ্গে ১৯৮ জনকে আটক করা হয়েছে।

নৌ-পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, উদ্ধারকৃত কারেন্ট জাল ও অন্যান্য জালের পরিমাণ ২২ লাখ ৬৮ হাজার ৭০০ মিটার, যার বাজার মূল্য আনুমানিক ৬ কোটি ৯০ লাখ ১৪ হাজার টাকা। এ ছাড়া জব্দ করা ১ হাজার ৩৮৯ কেজি মা ইলিশের মূল্য আনুমানিক ৬ লাখ ৪৪ হাজার ৮০০ টাকা।

নৌ-পুলিশ সূত্রে জানা যায়, অভিযানের আটক ১৩১ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ও ৩০ জনকে মোট ১ লাখ ৩৮ হাজার ৫০০ জরিমানা করা হয়েছে। এ ছাড়া একজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। আর বাকি ২৪ জনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা ও ১২ জনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নৌ-পুলিশের অভিযানে আটক করা ১৮টি নৌকা স্থানীয় চেয়ারম্যানের হেফাজতে রয়েছে, ছয়টি নৌকা ডুবিয়ে দেওয়া হয়েছে, ১১টি নৌকা ফাঁড়ি হেফাজতে এবং ১০টি ধ্বংস করা হয়েছে। জব্দ করা এসব জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। মাছগুলো বিভিন্ন এতিম খানায় বিতরণ করা হয়েছে। নৌ-পুলিশের হাতে আটক ৫টি ট্রলার নদীতে ডুবিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে এবং বাকি দুটি ফাঁড়ি হেফাজতে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে নৌ-পুলিশ। -ডেস্ক