(দিনাজপুর২৪.কম) পুরান ঢাকার চকবাজারে কেমিক্যাল গোডাউন ও কারখানা সরানো নিয়ে সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়ার অভিযোগ নাকচ করে দিলেন সদ্যবিদায়ী শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু। মন্ত্রী থাকা অবস্থায় পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল কারখানা সরাতে না পারার ব্যর্থতা ঢাকতেই দিলীপ বড়ুয়া আবোল-তাবোল বলছেন বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। আজ দুপুরে রাজধানীর ইস্কাটনের নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
শনিবার সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া বলেছিলেন, ‘সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমুর কারণে পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল কারখানা সরানো যায়নি।’
তার এ বক্তব্যের জবাব দিয়ে আমির হোসেন আমু বলেন, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া এমন একটি দলের প্রতিনিধিত্ব করেন, যে দলে নিজ যোগ্যতায় একজন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হওয়ারও সামর্থ্য নেই। ১৪ দলে না আসলে তাকে কেউ চিনতও না। তবুও তিনি সেদিকে খেয়াল না রেখে, উল্টো নিজের ব্যর্থতার দায় অন্যের উপর চাপানোর চেষ্টা করছেন।
আমির হোসেন আমু বলেন, ২০১০ সালে পুরান ঢাকার নিমতলীর অগ্নিকান্ডের ঘটনার পরে একটি কেমিক্যাল পল্লি স্থাপনের সিদ্ধান্ত হয়। এ লক্ষ্যে তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে বিসিকের চেয়ারম্যানকে সভাপতি করে একটি ১০ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু ওই কমিটির সভাপতি হওয়ার কথা ছিল তৎকালীন শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়ার।

সাবেক এই শিল্পমন্ত্রী আরও বলেন, আমি শিল্প মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রকল্প অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাই। আমার সময় কেমিক্যাল পল্লি গঠনের লক্ষ্যে ৫০ একর জমি অধিগ্রহণের অনুমোদন করানো হয়। তারপরই আমার মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। কিন্তু পরবর্তীতে ব্যবসায়ীদের বার বার আহ্বান করা হলেও তারা স্থানান্তরের চুক্তি সম্পাদনে আসেননি।  সুত্র: মানবজমিন