(দিনাজপুর ২৪.কম) সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের কৃঞ্চনগর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শাহিন সরদার নামে এক ছিনতাইকারী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিবগত রাত দেড়টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল হতে ১টি দেশীয় পাইপগান, ২টি বন্দুকের কার্তুজের খোসা, ২টি বন্দুকের তাজা গুলি ও ২টি রামদা উদ্ধার করে।

পুলিশের দাবি, এই ঘটনায় ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ শাহিন সরদারকে প্রথমে কালিগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের তথ্য কর্মকর্তা এস আই কামাল হোসেন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, গত ২০ আগস্ট বেলা ২টা ১৫ মিনিটের সময়  জেলার কালিগঞ্জ থানাধীন চাতড়ার মোড়ে কৃঞ্চনগর গ্রামের জনাতন ঘোষের ছেলে নির্মল চন্দ্র ঘোষের গতিরোধ করে কয়েকজন ছিনতাইকারী। এ সময় তার কাছ থেকে ৬ লাখ টাকা ছিনতাই করে পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয় জনগণ ও টহলরত পুলিশ ছিনতাইকারী শাহিন সরদারকে আটক করে। পরে ছিনতাইকৃত ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৮০০ টাকাসহ তাকে আনা হয়।
নির্মল ঘোষের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ধৃত আসামি শাহিন সরদারসহ তার অজ্ঞাতনামা সহযোগীদের বিরুদ্ধে কালিগঞ্জ থানায় মামলা হয়। শাহিন কালিগঞ্জের লক্ষিনাথপুর গ্রামের সোহেল উদ্দিন বাটুলের ছেলে।
আসামি শাহিনের তথ্যের ভিত্তিতে পলাতক ছিনতাইকারীদের গ্রেফতার ও ছিনতাইকৃত অবশিষ্ট টাকা উদ্ধারে কালিগঞ্জ থানার এসআই শহিদুল্লাহ ও এসআই খায়রুল আলম সঙ্গীয় ফোর্স ও আসামিদের নিয়ে বের হন। গত রাত ১টা ৩৫ মিনিটের সময় কালিগঞ্জ থানাধীন কৃষ্ণনগর গ্রামের এজাহার আলীর ছেলে মুনছুর আলীর বাড়ির পূর্ব পাশের কালিগঞ্জ-কৃষ্ণনগরের পাকা সড়কের ওপর পৌঁছানোমাত্র সেখানে অবস্থানরত শাহিনের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ করে। পরে তারা গুলি বর্ষণ করতে থাকে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায়। উভয়পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির এক পর্যায়ে আসামিরা পালিয়ে যায়। তবে আসামিদের ছোড়া গুলিতে আটক শাহিন সরদার দুই পায়ে গুলিবিদ্ধ এবং তাদের নিক্ষিপ্ত বোমার আঘাতে ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশীয় পাইপগান, ২টি বন্দুকের কার্তুজের খোসা, ২টি বন্দুকের তাজা গুলি ও ২টি রামদা উদ্ধার করে।
আহত শাহিন তরফদার ও ৩ পুলিশ সদস্যকে চিকিৎসার জন্য কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে শাহিন সরদারকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। (ডেস্ক)