Starc

Starc(দিনাজপুর২৪.কম)সেই মিচেল স্টার্ক-ই ওয়ানডেতে দ্রুততম ১০০ উইকেট দখলের বিশ্বরেকর্ড গড়লেন। অস্ট্রেলিয়ার এ পেসারের ওয়ানডে অভিষেক হয় ২০১০ সালের অক্টোবরে ভারতের বিপক্ষে। বিশাখাপত্তমে অভিষেক ম্যাচে হতাশ হতে হয় তাকে। ৮.৫ ওভারে ৫১ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি তিনি। তবে নিজের জাত চেনাতে ভুল করেননি অস্ট্রেলিয়ার এ পেসার। ওই বছর নভেম্বরে নিজের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাত্র ২৭ রানে ৪ উইকেট নেন। তারপরও ক্যারিয়ারের ৫০ ওয়ানডে উইকেট পেতে তাকে খেলতে হয় ২৯ ম্যাচ। তারচেয়ে কম ম্যাচ খেলে এই মাইলফলক স্পর্শ করা খেলোয়াড় এখন পর্যন্ত আছেন ২১ জন। দ্রুততম মাত্র ১৯ ম্যাচে ৫০ উইকেট দখলের রেকর্ড শ্রীলঙ্কার অজান্থা মেন্ডিসের। মেন্ডিসের চেয়ে ১০ ম্যাচ বেশি খেলে স্টার্ক ৫০ উইকেট পান। কিন্তু ওয়ানডেতে ১০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করার রেকর্ডে এসে পরিস্থিতি সম্পূর্ণ পাল্টে গেছে। সবচেয়ে কম ওয়ানডে খেলে এই মাইলফলক স্পর্শ করার রেকর্ড গড়লেন সেই স্টার্ক। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৩২ রানে ৩ উইকেট নেন তিনি। এতে ওয়ানডে তার মোট উইকেট এখন ১০১। মাত্র ৫২ ওয়ানডেতে এই মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি। এর আগে ওয়ানডেতে সবচেয়ে কম-৫৩ ম্যাচ খেলে ১০০ উইকেটের কৃতিত্ব ছিল সাকলাইন মুশতাকের। কিন্তু পাকিস্তানের এ কিংবদন্তি স্পিনারকে টপকে সবার ওপরে এখন মিচেল স্টার্ক। ক্যারিয়ারের প্রথম ২৯ ম্যাচে ৫০ উইকেট নিলেও পরের ৫০ উইকেট নিতে তিনি খেললেন ২৩ ম্যাচ। অথচ দ্রুততম ৫০ উইকেটের রেকর্ড গড়া সেই অজান্থা মেন্ডিস ১০০ উইকেট নিতে খেলেন ৬৩ ম্যাচ! এখন ৮৭ ওয়ানডে খেলে তার উইকেট ১৫২।
মিচেল স্টার্ক আরো একটি রেকর্ড গড়েছেন। ইতিমধ্যে তিনি ১১ বার এক ম্যাচে চারের অধিক উইকটে নিয়েছেন। ১০০ উইকেট পেতে এত বেশিবার কেউ চারের অধিক উইকেট নেননি। এর আগে এই মাইলফলক স্পর্শ করতে সর্বোচ্চ ১০ বার চারের অধিক উইকেট নেন ওয়াকার ইউনুস। কিন্তু পাকিস্তানের এ কিংবদন্তি পেসার এখন তালিকায় মিচেল স্টার্কের পরে।

ওয়ানডেতে দ্রুততম ১০০ উইকেট (শীর্ষ ৮)
খেলোয়াড়    ম্যাচ    সময়
মিচেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া)    ৫২    ২০১০-১৬
সাকলাইন মুশতাক (পাকিস্তান)    ৫৩    ১৯৯৫-৯৭
শেন বন্ড (নিউজিল্যান্ড)    ৫৪    ২০০২-০৭
ব্রেট লি (অস্ট্রেলিয়া)    ৫৫    ২০০০-০৩
ইমরান তাহির (দ. আফ্রিকা)    ৫৮    ২০১১-১৬
ওয়াকার ইউনুস (পাকিস্তান)    ৫৯    ১৯৮৯-৯৩
ইরফান পাঠান (ভারত)    ৫৯    ২০০৪-০৬
মরনে মরকেল (দ. আফ্রিকা)    ৫৯    ২০০৭-১৩