(দিনাজপুর২৪.কম) ২১ সেপ্টেম্বর সোমবার দিনাজপুর শিশু একাডেমী দিনাজপুর জেলা শাখা আয়োজিত শিশুদের মৌসুমী প্রতিযোগিতা -২০১৫ সম্পন্ন হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর কালেক্টরেট স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ রায়হানুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি স্বারদেশ্বরী উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ শফিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহজাহান নভেল। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও তথ্য প্রযুক্তি) তৌহিদুল ইসলাম, সভাপতি বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল আলম। জেলার ১৩ উপজেলার জ্ঞান জিজ্ঞাসা উপস্থিত বিতর্ক সমবেত দেশাত্মবোধক জারি গান, দলীয় নৃত্য আঞ্চলিক প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জনকারী শিশুরা জেলা পর্যায়ে অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রধান অতিথি বলেন, সাংষ্কৃতির মাধ্যমে ছেলেমেয়েদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটাবে। ছেলেদের মতো মেয়েরাও নৃত্য ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে এগিয়ে গেছে। তিনি বলেন, ভবিষ্যতে তোমরা আরো ভাল নৃত্য শিল্পী ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে বেশী করে যোগ্যতা অর্জন করবে। ছেলেমেয়েদের নৃত্য ও জ্ঞানচর্চা ব্যতীত আমাদের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারব না। নৃত্য ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মাধ্যমেই বাংলাদেশ বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। তিনি বলেন, উপজেলা স্কুল মাদ্রাসাগুলোতে নৃত্য ও সাংষ্কৃতিক কর্মকান্ড খুবই কম। এতে শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটাতে পারছে না। কিভাবে এই সমস্যা দুর করা যাবে আমরা সব রকমের চেষ্টা চালিয়ে যাব। জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, আজকে যারা এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছ, তাতে বিজয়ী হতে হবে এমন নয়, অংশগ্রহণই হলো বড় কথা। আস্তে আস্তে তোমরাও একদিন বিজয়ী হতে পারবে। সবাইকে চেষ্টা করতে হবে। অনুষ্ঠানে সর্বমোট ২০৮ জন শিশু অংশগ্রহণ করে। -এম. আর. মিজান