(দিনাজপুর২৪.কম) জঙ্গি দমনে শুরু হওয়া দেশব্যাপী সাঁড়াশি অভিযানের প্রথম দিনেই ৩৭ জঙ্গিসহ ৩ হাজার ১৫৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে ১টি শুটারগান, ১ রাউন্ড গুলি, ৫০০ গ্রাম গান পাউডার, ১৫টি ককটেল, ২১টি জিহাদি বই, ১৫টি ব্যক্তিগত ডায়েরি এবং ৭৫৭টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেলে পুলিশ সদরদপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা একেএম কামরুল আহসান বাংলামেইলকে এ তথ্য জানান।

তিনি জানান,  ৩৭ জঙ্গির মধ্যে ২৭ জন জেএমবি (জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ), ৭ জন জেএমজেবি (জাগ্রত মুসলিম জনতা বাংলাদেশ) এবং বাকি ৩ জন অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনের সদস্য। ঢাকা রেঞ্জের গাজীপুর জেলা ১ জন জেএমবি, ময়মনসিংহ রেঞ্জের ময়মনসিংহ জেলা ১ জন জেএমবি, শেরপুর জেলা ১ জন জেএমবি, রাজশাহী রেঞ্জের রাজশাহী জেলা ৭ জন জেএমজেবি, ২ জন জেএমবি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ৩ জন জেএমবি, সিরাজগঞ্জ জেলা ১ জন জেএমবি, বগুড়া জেলা ১১ জন জেএমবি, খুলনা রেঞ্জের নড়াইল জেলা ১ জন জেএমবি, রংপুর রেঞ্জের দিনাজপুর জেলা ২ জন জেএমবি, গাইবান্ধা জেলা ১ জন জেএমবি, কুড়িগ্রাম জেলা ২ জন জেএমবি, ডিএমপি, ঢাকা ৩ জন এবং আরএমপি, রাজশাহী ১ জন জেএমবি সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এছাড়া, দেশব্যাপী গত ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল, নিয়মিত মামলা এবং অবৈধ অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার মামলায় মোট ৩ হাজার ১৫৫ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসামিদের মধ্যে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত ১ হাজার ৮৬১ জন, নিয়মিত মামলায় ৯১৭ জন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার মামলায় ১৯ জন এবং মাদক উদ্ধার মামলায় রয়েছে ৩৫৮ জন।

তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ও জঙ্গি ধরতে গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। দেশে অব্যাহত গুপ্তহত্যা ঠেকানোর উপায় হিসেবে এই কৌশল নিয়েছে পুলিশ। এই অভিযান চলবে টানা সাত দিন।

যদিও এই অভিযানের নামে বিরোধী দমনের কৌশল এবং পুলিশের গ্রেপ্তার বাণিজ্য, ঈদ বকশিশ আদায়ের সুযোগ করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করছে বিএনপি। -ডেস্ক