(দিনাজপুর২৪.কম) সরকার বেসরকারি খাতকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করার লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এ জন্য ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হয়েছে। প্রত্যেকটি অর্থনৈতিক অঞ্চলে কর্মসংস্থানের জন্য স্থানীয়রা প্রাধান্য পাবেন। আওয়ামী লীগ সরকার বেসরকারি খাতকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) সকালে বিনিয়োগ আকর্ষণে রাজধানীতে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বেপজার  ‘ইন্টারন্যাশনাল ইনভেস্টর সামিট’ উদ্বোধনের আগে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বেপজার এই অর্থনৈতিক অঞ্চলের উদ্বোধন করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ দেশে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারে বিনিয়োগকারীদের সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হচ্ছে। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের কথা চিন্তা করে ১০০টি শিল্পাঞ্চল করা হয়েছে। বিদেশিরা নির্দ্বিধায় এসব শিল্পাঞ্চলে বিনিয়োগ করতে পারেন। তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থাও আমরা করেছি। বর্তমান সরকার ব্যবসা ও জনবান্ধব সরকার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিল্প স্থাপনের ক্ষেত্রে জমির ব্যবহারও দেখে শুনে করতে হবে; যাতে আমাদের কৃষি জমি নষ্ট না হয়।

মিরসরইয়ের সংসদ সদস্য গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী মোশাররফ হোসেন চাকরির ক্ষেত্রে স্থানীয়দের অগ্রাধিকার দেয়ার দাবির প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী জানান, সব অর্থনৈতিক অঞ্চলেই চাকরির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবে স্থানীয়রা।

মিরসরাই থেকে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমান চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল-বেজার জন্য অধিগ্রহণ করা ৩০ হাজার ৭৯ একর জমির মধ্যে বেপজাতে বেপজাকে ১১৫০ একর জমি দেয়া হয়েছে। দুই বছরের মধ্যে এই জমিতে শিল্প স্থাপন হবে।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক বলেন, ‘উন্নয়নের মাইলফলক চট্টগ্রামে রচনা করায়, চট্টগ্রামের সকল মানুষের পক্ষ থেকে আমি আপনাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

অন্যদিকে মিরেরসরাইয়ে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার, চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ার‌ম্যান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য, চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতা, ব্যবসায়ীরা।