ছবি : সংগৃহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) সরকারি হস্তক্ষেপের প্রতিবাদে হাঙ্গেরির প্রধান ও জনপ্রিয় অনলাইন সংবাদ সংস্থা ইনডেক্স থেকে সম্পাদকসহ সত্তরের বেশি সাংবাদিক পদত্যাগ করেছেন। তাদের অভিযোগ, সরকার সংবাদমাধ্যমটিকে ধ্বংস করে দিতে চায়। একই সঙ্গে তাদের বশীভূত করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

গতকাল শুক্রবার সাংবাদিকরা গণমাধ্যমটি থেকে গণহারে পদত্যাগ করেন কর্মীরা। এর আগে গত মঙ্গলবার ইনডেক্সের প্রধান সম্পাদক এসজাবোলস ডালকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

সাংবাদিকদের অভিযোগ, এই বরখাস্তকরণ সুস্পষ্ট হস্তক্ষেপ। এর মধ্য দিয়ে সরকার এই সাইটটির ওপর চাপ সৃষ্টি করতে চায়।

এ ঘটনার কয়েক ঘন্টা পরেই রাজধানী বুদাপেস্টে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও সাংবাদিকদের নিরাপত্তার দাবিতে বিক্ষোভ করে কয়েকশ মানুষ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, গত এক দশক ধরে দেশটির রক্ষণশীল ও জাতীয়তাবাদী প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবার্নের সমর্থকরা দেশের নিরপেক্ষ গণমাধ্যমের ওপর আস্তে আস্তে নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছেন। সাংবাদিকতার স্বাধীনতা সূচকে হাঙ্গেরি ১৮০টি দেশের মধ্যে ৮৯তম স্থানে রয়েছে।

কয়েক মাস আগে প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবানপন্থি একজন ব্যবসায়ী মিকলোস ভাসজিলে প্রতিষ্ঠানটির শতকরা ৫০ ভাগ শেয়ার কিনে নেন, যেখান থেকে ইনডেক্সের বিজ্ঞাপন ও রাজস্ব আয় নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

গত মাসে ইনডেক্সের প্রধান সম্পাদক সাবোলকস ডাল সতর্কতা দেন যে, বাইরে থেকে ইনডেক্সের ওপর চাপ দেওয়া হচ্ছে। এর ফলে আক্রান্ত হতে পারেন সম্পাদকীয় স্টাফরা। গত ২২ শে জুন একটি উদ্বেগজনক লেখায় তিনি হুঁশিয়ারি দেন। তাতে বলেন, এই ওয়েবসাইটটির সম্পাদকীয় বিভাগের স্টাফরা বিপদের মুখে। এর হোমপেজে ‘ফ্রিডম ব্যারোমিটার’ও বিপদের মুখে। -ডেস্ক