(দিনাজপুর২৪.কম) বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম হলেও বাকিগুলোতে শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা। আজ সোমবার নির্বাচন ভবনে তিন সিটি নির্বাচন নিয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, রাজশাহীর ১৩৮ কেন্দ্রের সবগুলোতে শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে। সিলেটের ১৩৪ কেন্দ্রের মধ্যে দুইটি ব্যতিত সবগুলোর ভোট সুষ্ঠু হয়েছে। তবে বরিশালে ১২৩টি কেন্দ্রের মধ্যে বিক্ষিপ্ত ঘটনায় একটিতে ভোট স্থগিত করা হয়েছে। আর ১৫টি কেন্দ্রের ফলাফল স্থগিত করা হয়েছে। রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এসব ফলাফল স্থগিত করা হয়েছে।
রাজশাহীর মেয়র প্রার্থী অনিয়মের অভিযোগ এনে ভোট দেননি, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাজশাহীতে ভোটে কোন অনিয়ম হয়নি। তিনি নির্বাচনকে কিভাবে নিয়েছে সেটা তার ব্যাপার।
নির্বাচনে অনিয়ম প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা নির্বাচনে কোন প্রকার অনিয়ম প্রত্যাশা করি না। প্রিজাইডিং অফিসারদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যই আমাদের কাছে গ্রহনযোগ্য। তাদের কাছ থেকে তথ্যের ভিত্তিতেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বরিশালে মেয়র প্রর্থী মনিষা চক্রবর্তির উপর হামলা বিষয়ে সিইসি বলেন, নির্বাচনে সকল বিশৃঙ্খলা রোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশনা দেয়া আছে। ওই প্রার্থী চাইলে মামলা করতে পারেন। আমরা তাকে সেই পরামর্শ দেবো।

বরিশালে কয়কজন প্রার্থী পুনরায় ভোটগ্রহনের আবেদন জানিয়েছেন, এ বিষয়ে তিনি বলেন, বরিশালে পুনরায় ভোট নেয়ার অবস্থা হয়নি। আমরা পেয়েছি ১৫ কেন্দ্রে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা প্রয়োজন, সেটি আমরা করব। কিন্তু পুনরায় নির্বাচন করার অবস্থা সেখানে নেই।

তবে তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। এসময় প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ উপস্থিত ছিলেন।  -ডেস্ক