(দিনাজপুর২৪.কম) জাতীয় সংসদে বহুল আলোচিত বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন পাস হয়েছে। আজ সোমবার ‘বাল্য বিবাহ নিরোধ বিল- ২০১৭’ সংসদে পাস করা হয়। এর আগে বিলটি পাসের জন্য প্রস্তাব করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি। পওে কণ্ঠভোটে বিলটি পাস হয়। তার আগে বিলের ওপর দেওয়া বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যদের জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে পাঠানো ও সংশোধনী প্রস্তাবগুলো নিয়ে আলোচনা হলেও কণ্ঠভোটে তা বাতিল হয়ে যায়। এই আইন পাস হওয়ায় মেয়ে ও ছেলেদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স আগের মতো ১৮ ও ২১ বছর বহাল থাকলেও ‘বিশেষ প্রেক্ষাপটে’ কম বয়সেও বিয়ের সুযোগ তৈরি হল।
আইন পাসের প্রক্রিয়ার সময় ওঠা প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী চুমকি বলেন, বিশেষ বিধানের এই সুযোগ যে কেউ চাইলেই পাবে না। কোনো অনভিপ্রেত ঘটনার ক্ষেত্রে পিতামাতা বা বৈধ অভিভাবক এবং আদালতের সম্মতি লাগবে। আদালতের অনুমতি ছাড়া কেউ বিয়ে দিতে পারবে না। তবে পাস হওয়া বিলে ‘বিশেষ প্রেক্ষাপট’ বিধি দ্বারা নির্ধারিত রাখার কথা বলা হয়েছে, যা সংসদে উত্থাপিত খসড়ায় ছিল না। সামাজিক ক্ষেত্রে নানা সূচকে অগ্রগতি হলেও বাংলাদেশ বাল্য বিয়ে রোধের ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে। -ডেস্ক