(দিনাজপুর২৪.কম) শ্রীলঙ্কা দলের ফিল্ডিং কোচ হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন জিম্বাবুয়ের সাবেক ক্রিকেটার তাতেন্দা তাইবু। ক্রিকেটে দীর্ঘ অভিজ্ঞতা থাকলেও কোচিং-এ তা নেই সাবকে এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের। স্পোর্টসউইকি ওয়েব পোর্টালে প্রকাশিত এক রিপোর্টে এ‌ই তথ্য জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের (এসএলসি) কাছে গত মাসে নিজের ছয় পৃষ্ঠার জীবন বৃত্তান্ত পাঠিয়েছেন মাত্র ১৯ বছর বয়সে জিম্বাবুয়ে দলের অধিনায়কত্ব পাওয়া তাইবু।

২০০১ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তাইবুর। তবে সবাইকে অবাক করে দিয়ে ২০০৫ সালে অবসর ঘোষণা করেন তিনি। এরপর তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে খেলার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু দলে জায়গা করে নিতে পারেননি। এরপর আবার ২০০৭ সালে জিম্বাবুয়ের হয়ে খেলায় ফেরেন তিনি। ২০১২ সালে চূড়ান্তভাবে অবসর নেয়ার পর ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) লেবেল-২ কোচিং সনদ লাভ করেন তাইবু। এবার অন্য ক্ষেত্রে নিজের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান তিনি।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের ফিল্ডিং কোচ হতে আবেদন করার বিষয়টি নিশ্চিত করে তাইবু বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটকে সেবা দিতে আগ্রহী। ফিল্ডিং কোচ হিসেবে বোর্ডগুলো অধিকাংশ সময়ই উইকেটরক্ষকদের অবজ্ঞা করে। একজন ফিল্ডিং কোচকেও অবশ্যই ঐ বিশেষ পজিশনে দক্ষতা থাকতে হবে। একজন সাবেক উইকেটরক্ষক হিসেবেই এটাই প্রথম ও সর্বোচ্চ সুবিধার বিষয়। এছাড়াও ব্যাটিং, সাইডআর্ম, নির্বাচন অধিনায়কত্বসহ অনেক বিষয়ে আমি সাহায্য করতে পারব। কেননা এসব বিষয়ে আমার অভিজ্ঞতা আছে।’

খেলোয়াড়ী জীবনে জিম্বাবুয়ের হয়ে ২৮ টেস্টে ১৫৪৬ রান করেছেন তাইবু। এ ছাড়া জাতীয় দলের হয়ে ১৫০ ওয়ানডে ও ১৭টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলারও অভিজ্ঞতা আছে তার। মাত্র ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি উচ্চতা হলেও জিম্বাবুয়ের গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড় ছিলেন তাইবু। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটের দুর্দিনের কারণেই তার ক্যারিয়ার লম্বা হতে পারেনি। -ডেস্ক