(দিনাজপুর২৪.কম) শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচ জিতে ফের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠলো কলকাতা নাইট রাইডার্স। পয়েন্ট টেবিলের তলানির দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে তারা হারালো ৭ রান। জয়ের ব্যবধান দেখলে ম্যাচটি শ্বাসরুদ্ধকর মনে নাও হতে পারে। কিন্তু ম্যাচটি ছিল শেষ পর্যন্ত জমজমাট। কলকাতার ছুড়ে দেয়া ১৬৫ রান সামনে নিয়ে ৬ উইকেটে ১৩৩ রান তুলে ফেলে পাঞ্জাব। শেষ ১৪ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৩৩ রানের। এই অবস্থায় ১৮তম ওভারের শেষ দুই বলে আন্দ্রে রাসেলকে টানা দুই ছক্কা হাঁকান অক্ষর প্যাটেল। এতে ম্যাচটি জমে ওঠে। শেষ দুই ওভারে টার্গেট দাঁড়ায় ২২ রানে। মরনে মরকেলের করা ১৯তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ফের চার মানের অক্ষর। এতে মাত্র ৩ বলে ১৬ রান করে ফেলেন ভারতের এ ব্যাটসমস্যান। ম্যাচের ভাগ্য অনেটা ঝুকে যায় পাঞ্জাবের দিকে। ১৯তম ওভারে ১০ রান দেন মরকেল। শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ১২ রান। বল হাতে যান আন্দ্রে রাসেল। প্রথম বলে আকে রান দেন। দ্বিতীয় বল করার পর অক্ষর প্যাটেলকে দুর্দান্ত রানআউট করেন রাসেল। ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা অক্ষর ফেরেন ৭ বলে ২১ রানে। এই আউটের পর আবার ম্যাচ ঝুকে যায় কলকাতার দিকে। রাসেল আরও ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন। তৃতীয় বলে গুরকিরাত সিংকে ফেরানোর পর পঞ্চম বলে এলবিডাব্লিউ করেন সপ্নীল সিংকে। এতে জয়ের স্বপ্ন শেষ হয়ে যায় পাঞ্জাবের। শেষ ওভারে মাত্র ৩ রান দিয়ে আন্দ্রে রাসেল তুলে নেন ৩ উইকেট। ম্যাচসেরা এ খেলোয়াড় ৪ ওভারে ২০ রানে নেন ৪ উইকেট। পাঞ্জাবকে লড়াইয়ে টিকিয়ে রাখার নায়ক ছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। তিনি ৪ ছক্কা ও ৬ চারে ৪২ বলে করেন ৬৮ রান। কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে এর আগে উদ্বোধনী জুটিতে নাইট রাইডার্সকে ১৩.৩ ওভারে ১০১ রানের জুটি এনে দেন রবিন উথাপ্পা ও গৌতম গম্ভীর। অধিনায়ক গম্ভীর ৪৫ বলে ৫৪ রানে ফেরার পর উথাপ্পা ফেরেন ৪৯ বলে ৭০ রানে। ২ ছক্কা ও ৬ চার হাঁকান তিনি। আর শেষের দিকে আন্দ্রে রাসেল করেন ১০ বলে ১৬ রান। অবাক করা কথা হলো এদিন কলকাতার তিনজনই ফেরেন রানআউট হয়ে। আইপিএলের ইতিহাসে ১৩ বার রানআউট হয়ে রেকর্ড গড়লেন গৌতম গম্ভীর। এত বেশিবার রানআউট আর কেউ হয়নি। আগের ম্যাচ না খেললেও এদিন খেলেন সাকিব আল হাসান। ৩ ওভারে ২১ রান দিয়ে উইকেট নিতে পারেননি তিনি। তবে গুরুত্বপূর্ণ দু’টি ক্যাচ ধরেন তিনি। ৯ ম্যাচে ৬ জয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে কলকাতা নাইট রাইডার্স। আর ৮ ম্যাচে ৬ হারে পয়েন্ট টেবিলের একেবারে তলানিতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব।-ডেস্ক