(দিনাজপুর২৪.কম) শুরু হয়েছে শৈত্যপ্রবাহ। শুক্রবার দেশের কয়েকটি স্থানে তাপমাত্রা কমে গেছে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে। শৈত্যপ্রবাহ আপাতত রংপুর বিভাগে সীমাবদ্ধ হলে এর আওতা এবং সময় দুটোই বাড়তে পারে।

এ দিকে দেশব্যাপী চলছে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা। ঘন কুয়াশার ফলে কমে এসেছে দৃষ্টিসীমা। নদী তীরবর্তী এলাকার কুয়াশায় দূরের বস্তু দেখা যাচ্ছে না। রাতের বেলা নৌযানগুলো চলছে অনেকটা ঝুঁকি নিয়ে। সড়ক পথে দূরপাল্লার যানবাহনগুলোকে দুর্ঘটনা রোধে গতি কমিয়ে চলতে হচ্ছে।

রংপুর বিভাগে বয়ে চলা শৈত্যপ্রবাহ এই সপ্তাহের মধ্যে সমগ্র উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়তে পারে। রাতের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে যেতে পারে সারা দেশে। হয়তো দেখা যাবে রংপুর বিভাগ ও এর সংলগ্ন এলাকায় আরো বেশি তাপমাত্রা কমে গেছে।

তবে আজ শনিবার দিনের তাপমাত্রাও কমবে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবারদেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেঁতুলিয়ায় ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাজধানীর সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ২৪.২ ও ১৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তেঁতুলিয়ায় শুক্রবার তাপমাত্রা ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে গেলে এর কাছাকাছি ডিমলায় ছিল সাড়ে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রংপর বিভাগের সর্বত্রই তাপমাত্রা এমনই নেমে গেছে। প্রচণ্ড ঠাণ্ডা বিরাজ করছে সেখানে। রাজশাহী বিভাগের তাপমাত্রাও এর চেয়ে খুব বেশি নয়। রাজশাহী ও রংপুর বিভাগ ছাড়া দেশের অন্যান্য অঞ্চলে স্বাভাবিক শীত বিরাজ করছে।

মূলত উপদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও সংলগ্ন অঞ্চলে বিরাজ করছে। এর প্রভাবে বাংলাদেশে ঠাণ্ডা বেড়েছে। উচ্চচাপ বলয় তীব্র হলে ঠাণ্ডাও বাড়ে। মূলত সাইবেরিয়া অঞ্চলের ঠাণ্ডা বাতাস আসতে আসতে হিমালয় অঞ্চলে বাধাপ্রাপ্ত হয়। এর সামান্য একটি অংশ হিমালয়ের উপর দিয়ে চলে আসে।

এর প্রভাবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ এলাকায় তাপমাত্রা কমে যায়। উচ্চচাপ বলয় বেশি তীব্র হলে এর কিছুটা ছোঁয়া লাগে বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে। ফলে সেখানে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের অঞ্চলগুলো ভারতের কাঞ্চনজঙ্ঘা থেকে খুব বেশি দূরে নয়। ফলে কাঞ্চনজঙ্ঘার কনকনে ঠাণ্ডাও চলে আসে বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোতে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, নীলফামারী, পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রাম অঞ্চলগুলোর উপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। আজ দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে বিস্তার লাভ করতে পারে। রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে উচ্চ ও নিম্ন তাপমাত্রার মধ্যে পার্থক্য বেশ কম। ফলে এসব এলাকায় এমনিতেই ঠাণ্ডা অনুভূত হচ্ছে।

ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের অবস্থাও একই রকম। তবে তাপমাত্রা মোটামোটি সহনীয় অবস্থায় রয়েছে কেবল চট্টগ্রাম বিভাগে। কুয়াশা ভেজা সকালবেলার সাথে আজো যোগ হবে দেশের কিছু কিছু অঞ্চলে মেঘলা আকাশ। -ডেস্ক