(দিনাজপুর২৪.কম) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জার্মানি সফরকে কেন্দ্র করে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন জার্মানি শাখা ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। আগামী ১৪ থেকে ১৬ ফেব্রুয়ারি মিউনিখে নিরাপত্তাবিষয়ক এক সম্মেলনে তিনি যোগ দেবেন। চতুর্থবার প্রধানমন্ত্রিত্ব গ্রহণের পর এটাই শেখ হাসিনার প্রথম বিদেশ সফর। জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেলের আমন্ত্রণে তিনি মিউনিখ সিকিউরিটি কনফারেন্সে যোগ দেন।

প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে থাকবেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে এম আবদুল মোমেন। এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, শিগগিরই জার্মানি সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। এটার এখনো প্রক্রিয়া চলছে। তবে এটা ঠিক, তিনি প্রথমে জার্মানি যাচ্ছেন, এরপর যাবেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে। সম্মেলনে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেলের সঙ্গে শেখ হাসিনার দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের সম্ভাবনার কথাও বলেন ড. মোমেন।

জার্মানি থেকে ফেরার পথে এক সামরিক প্রদর্শনীতে যোগ দেন এবং দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে যোগ দিতে আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি আমিরাত সফরে যাবেন শেখ হাসিনা। ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর প্রথম বিদেশ সফরে সৌদি আরব গিয়েছিলেন শেখ হাসিনা। ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পর তার প্রথম বিদেশ সফর ছিল মিয়ানমারে।

চতুর্থবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর শেখ হাসিনার প্রথম বিদেশ সফরে ইউরোপ আগমনে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছেন প্রবাসী নেতাকর্মীরা। এ সফরকে কেন্দ্র করে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন জার্মানি শাখার সভাপতি ইউনুস আলী খান ফাউন্ডেশনের সব সদস্যকে মিউনিখে উপস্থিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর অনুরোধ করেছেন।

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন জার্মানি শাখার সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা শিল্পী কণা ইসলাম জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানাতে ইউরোপীয় আওয়ামী লীগ এবং জার্মানি আওয়ামী লীগের নেতাদের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ইউনুস আলী খানসহ অনেকেই ওই সময় মিউনিখে অবস্থান করবেন। আমরা নেত্রীকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও সর্বাত্মক সমর্থন জানাতে অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছি। -ডেস্ক