(দিনাজপুর২৪.কম) নির্বাচন নিয়ে বিএনপি তার অবস্থান পরিবর্তন করেনি বলে স্পষ্ট করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, দেশে শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে কোন নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। তাদের অধীনে ভোট দেয়া সম্ভব হবে না। দেশের জনগন  ভোট দিতে পারবে না। খালেদা জিয়া বলেন,  আমরা নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই, নির্বাচনে অংশ নিতে চাই। আমাদের অবস্থানে দিক থেকে কোন পরিবর্তন হয়নি। ২০ দলীয় জোট নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন করবে।  বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল। তার দল শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ দাবি করে খালেদা জিয়া বলেন, নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন করতে পারেন নাই। তাই তার পদত্যাগ করা উচিৎ। শনিবার রাতে গুলশানে নিজের কাযার্লয়ে রাজশাহী জেলা আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত নেতাবৃন্দের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ সব কথা বলেন। জেলা আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি অ্যাডভোকেট নাজমুস শাহাদাত, সহসভাপতি অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান এবং   জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী  ফোরামের সভাপতি অ্যাডভোকেট এরশাদ আলী ঈশাসহ  জেলার আইনজীবী নেতারা খালেদা জিয়াকে ফুলের তোড়া দিয়ে স্বাগত জানান।  উল্লেখ্য রাজশাহী জেলা আইনজীবী সমিতির ২১ টি পদের মধ্যে সভাপতি সাধারণ সম্পাদকসহ ১৭ টি পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবীদের প্যানেল জয় লাভ করে। এই মতবিনিময় সভায় ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব  হোসেন, অ্যাডভোকেট এজে  মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন  খোকন, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, অ্যাডভোকেট মহসিন মিয়া, স্থানীয় নেতাদের মধ্যে  জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল মনির,সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান মন্টু, সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল হাই প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। -ডেস্ক