(দিনাজপুর২৪.কম) প্রধানমন্ত্রী এবং প্রধান বিরোধী দল বিএনপিনেত্রী— দু’জনের কাউকেই চলতি বছরের খুশির ঈদে দেশে পাচ্ছে না বাংলাদেশ! জাতিসঙ্ঘ ৭০তম অধিবেশনে যোগদান করার জন্য বুধবার সকালে ঢাকা ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে শুধু প্রধানমন্ত্রীই নন, প্রধান বিরোধী নেত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াও এ বারের ঈদে বাংলাদেশে থাকছেন না। এ মাসের ১৫ তারিখে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য লন্ডনে চলে গেছেন তিনি। পাশাপাশি বাংলাদেশের রাজনৈতিক নেতাদের অনেকেও ঈদের সময় থাকতে বাধ্য হচ্ছেন দেশের বাইরে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বুধবার ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে নিউ ইয়র্কের দিকে রওনা দিয়েছেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলি, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি। সঙ্গে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, গওহর রিজভি এবং মশিউর রহমান। প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এবং মেহের আফরোজ চুমকিও এক বিমানে নিউ ইয়র্ক রওনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে।
এ দিন সকাল ১০টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানাতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশিদ খান মেনন। যাত্রাসূচী অনুযায়ী, সফরে ঘণ্টা তিনেক লন্ডনের হিথরো বিমানবন্দরে যাত্রাবিরতির জন্য থামবেন শেখ হাসিনা। লন্ডন থেকে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের একটি বিমানে নিউ ইয়র্ক রওনা দেবেন তিনি। এ দিন রাত ১০টায় তার নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি বিমানবন্দরে পৌঁছনোর কথা। সেখানে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনার পরে শেখ হাসিনা হোটেল ওয়ালডর্ফ এসেটোরিয়ায় যাবেন। যুক্তরাষ্ট্র সফরের দিনগুলো এ বার এই হোটেলেই কাটাবেন তিনি।অবশ্য বিএনপি-র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর চিকিৎসার জন্য লন্ডনে থাকলেও ঈদের আগেই দেশে ফিরছেন বলে জানা গিয়েছে। আওয়ামী লিগের সাধারণ সম্পাদক মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামও এ বারে লন্ডনে পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদ্‌যাপন করবেন।