(দিনাজপুর২৪.কম) ঢাকায় বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে রাজধানী। আর সেই উত্তাল ঢেউ ছড়িয়ে পড়েছে সারাদেশে। ঢাকায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একাত্বতা প্রকাশ করে সারাদেশের শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার (০২ আগস্ট) সকাল থেকে আন্দোলন ও বিক্ষোভ করেছে। দাবি তুলেছে নিরাপদ সড়ক ও নৌ-পরিবহন মন্ত্রীর পদত্যাগের। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

বরগুনা
ঢাকায় বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনার প্রতিবাদে বরগুনায় সড়ক অবরোধ করে আন্দোলনে নেমেছে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। অাজ বেলা ১১টার দিকে বৃষ্টি উপেক্ষা করে বরগুনার টাউনহল ও বরগুনা প্রেস ক্লাব সংলগ্ন সদর রোড এলাকায় সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করে তারা। এতে বন্ধ হয়ে যায় ওই দুই সড়কের যান চলাচল।

এ সময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন যানবাহনে চেকিং করতে দেখা যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ সময় বরগুনা পুলিশ সুপার বিজয় বসাক শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণের আশ্বাস দিলে সড়ক থেকে সরে যায় তারা।এ বিষয়ে বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক বলেন, বরগুনায় আন্দোলনরত সকল শিক্ষার্থীদের সকল দাবি মেনে নেয়া হয়েছে। এখন থেকেই তাদের সকল দাবি বাস্তবায়নে কাজ করবে বরগুনা জেলা পুলিশ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ করেছে কলেজের শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণ থেকে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এতে সরকারি কলেজসহ বিভিন্ন কলেজ ও বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের নানা স্লোগানে উত্তাল হয়ে ওঠে শহর।বিক্ষোভ মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চুয়াডাঙ্গা
চুয়াডাঙ্গায় সড়কে অবস্থান ও বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকালে শহরের শহীদ হাসান চত্বর ও সরকারি কলেজের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় সড়ক দুটিতে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শিক্ষার্থীদের এই সমাবেশ থেকে নৌমন্ত্রীর পদত্যাগসহ সারাদেশে নিরাপদ সড়ক গড়ে তোলার দাবি জানানো হয়।পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে শিক্ষার্থীরা সড়ক থেকে অবস্থান তুলে নিয়ে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। এ সময় সাধারণ শিক্ষার্থীরা সারাদেশে নিরাপদ সড়ক ব্যাবস্থা গড়ে তোলাসহ নিরাপদ সড়ক আইন সংস্কার করে যুগোপযুগী করার দাবি জানান।

কুষ্টিয়া
কুষ্টিয়ায় নিরাপদ সড়ক, ঘাতক বাস চালকদের ফাঁসি, মন্ত্রীদের দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য না দিতে, শিক্ষার্থীদের বাস ভাড়া অর্ধেক করতে এবং সড়কে নিরাপদ ভ্রমণে সরকারের উদ্যোগ গ্রহণের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত শহরের মজমপুর গেটে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। স্কুল, কলেজ বন্ধ ঘোষণার পরও কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শত শত শিক্ষার্থী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়। মজমপুর গেট থেকে মানবন্ধন শেষে বিক্ষোভ মিছিলটি খণ্ড খণ্ড ভাবে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে থানা মোড়ে শেষ হয়।

মেহেরপুর
নিরাপদ সড়ক ও শিক্ষার্থী হত্যার বিচারের দাবিতে মেহেরপুরে মানববন্ধন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মেহেরপুর প্রেস ক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা মানববন্ধনে অংশ নেয়।

নাটোর
নাটোরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেরশিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে। আজ বেলা ১১টার দিকে নাটোর প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে শিক্ষার্থীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। বিক্ষোভ মিছিলটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবারও প্রেস ক্লাবের সামনে ফিরে আসে। পরে সেখানে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের ক্ষতিপূরণ এবং দায়ী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান।

দিনাজপুর
দিনাজপুরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠা বন্ধ থাকার পরও ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ দাবিতে আন্দোলন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত শহরের লিলিমোড়ে এই আন্দোলন করে শিক্ষার্থীরা।
শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের সঙ্গে একাত্ততা ঘোষণা করে শহরের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা দুপুর ১২টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করে। এ সময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে নৌমন্ত্রী শাহাজাহান খানের পদত্যাগ দাবি করে।

বেরোবি
নিরাপদ সড়ক, ঘাতক বাস চালকদের বিচার, নৌমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিসহ আন্দোলনরত স্কুল-কলেজ শিক্ষার্থীদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা জানিয়ে নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শিক্ষার্থীরা।আজ বেলা ১১টা থেকে ক্যাম্পাস সংলগ্ন পার্কমোড়ে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন। এ সময় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্রতিবাদী প্লেকার্ড প্রদর্শন করেন।

রাবি
সড়কে নিরাপত্তা বৃদ্ধি, বাস চালকদের নির্দিষ্ট কর্মঘণ্টা নিশ্চিত করাসহ সড়কে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবিকে সমর্থন জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করলেও আজ দুপুর ১২ টার দিকে রাবি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে একটি মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা মিলিত হয়।এ সময় ‘শোকে গোপাল ভাঁড়ও হাসে না, মন্ত্রী হাসে’ ‘রক্ত ঝরে রাজপথে, প্রশাসন নীরব থাকে’ এরকম বিভিন্ন প্লেকার্ড ধরে রাখে শিক্ষার্থীরা।

গাজীপুর
নিরাপদ সড়ক চাই ও নৌমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আজ সকালে বিক্ষোভ করেছে। সকাল থেকেই উপজেলার আশেপাশের এলাকার স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীরা চন্দ্রা এসে জড়ো হয়। পরে তারা সড়কে চলাচলকারী যানবাহনের গাড়ীর ও চালকদের লাইসেন্স দেখে গাড়ী ছাড়ে। ফলে সড়কে যানবাহনের দীর্ঘ লাইন হয়ে প্রকট যানজটের সৃষ্টি হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্লোগানে সড়কে অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। ফলে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ওই সড়কে প্রায় দুই ঘন্টা যানচলাচল বন্ধ থাকে। পরে থানা পুলিশ এসে শিক্ষার্থীদের অনুরোধ করে সড়ক থেকে সড়িয়ে নিলে যান চলাচল করতে থাকে।

টাঙ্গাইল
নিরাপদ সড়ক চাইসহ নয় দফা দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল এবং ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু মহাসড়ক অবরোধ করে টাঙ্গাইলের সাধারন শিক্ষার্থীরা। আজ সকাল ১১ টায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অবস্থান করে। পরে সেখান থেকে সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে ‘আমার ভাই কবরে, খুনি কেন বাহিরে’ নিরাপদ সড়ক চাইসহ বিভিন্ন শ্লোগানে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু মহাসড়কের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। ১১ টা ৪০ মিনিট হতে ১২ টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু মহাসড়কের আশেকপুর বাইপাস মোড়ে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

গোপালগঞ্জ 
নিরাপদ সড়কের দাবিতে গোপালগঞ্জে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষার্থীরা। আজ গোপালগঞ্জে মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। শহরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচি পালন করে।
বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সড়কের উপর দাঁড়িয়ে হাতে হাত ধরে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন ও সড়ত অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। ওই সড়ক দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেলে উভয় পাশে আটকা পড়ে শত শত যানবাহন। পরে পুলিশ গিয়ে শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে সড়কের উপর থেকে উঠিয়ে দিলে ওই সড়ক দিয়ে যান চলাচল শুরু হয়।

ঝালকাঠি 
নিরাপদ সড়কের দাবিতে ঝালকাঠিতে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে। আজ সকাল ১১টায় শহরের ফায়ার সার্ভিস মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি শহর ঘুরে প্রেস ক্লাবের সামনে শেষ হয়। সেখানে অনুষ্ঠিত হয় মানববন্ধন ও সমাবেশ। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

সিলেট 
রাজধানী ঢাকায় বাস চাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় শিক্ষার্থীদের আন্দোলন সাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানের মতো সিলেটেও ছড়িয়ে পড়েছে। আজ বিকাল ২টা থেকে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও চৌহাট্টা পয়েন্টে নৌমন্ত্রী শাজান খানের পদত্যাগ দাবিসহ ৯ দফা দাবিতে জড়ো হয়েছেন শিক্ষার্থীরা। জড়ো হওয়া ছাত্র-ছাত্রীরা নগরীর বিভিন্ন স্কুল-কলেজ ও মাদরাসা পড়ুয়া বলে জানাগেছে। তারা নগরীর ব্যস্ততম চৌহাট্টা সড়কের চারটি রাস্তাই অবরোধ করে রাখে।

মুন্সীগঞ্জ
নিরাপদ সড়ক ও নৌমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে সিরাজদিখানে সড়ক অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা। ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের সিরাজদিখানের কুচিয়ামোড়া এলাকায় বিক্রমপুর আদর্শ ডিগ্রি কলেজ ও আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে বেলা ১২ টা পর্যন্ত দুই ঘন্টা ব্যাপী এই সড়কে তারা অবস্থান করে। এ সময় কুচিয়ামোড়া থেকে দুই দিকে দুই দিকে ২ কিমি যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে ভোগান্তিতে পরে এ রুটের চলাচলরত যাত্রীরা। স্কুল কমিটির সভাপতি ও কেয়াইন ইউপি চেয়ারম্যান বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বললে তারা অবরোধ উঠিয়ে নেয়।

হবিগঞ্জ 
নিরাপদ সড়ক ও বাস চাপায় নিহত শিক্ষার্থীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ, মানববন্ধনসহ মিছিল করেছেন হবিগঞ্জের শিক্ষার্থীরা। আজ বেলা ১১টায় জেলা শহরের প্রধান সড়ক দিয়ে মিছিল করে বৃন্দাবন সরকারি কলেজের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা। এ সময় বিভিন্ন যানবানের চালকদের লাইসেন্স যাচাই করেন। সমাবেশের এক পর্যায়ে যানবহনের চালকদের লাইসেন্টসহ ফিটনেস না থাকায় উত্তেজিত হয়ে রাস্তায় নেমে আসে। শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়নের দাবি জানায়।

নারায়ণগঞ্জ
বাস চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে ৯ দফার দাবীতে রূপগঞ্জে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার গোলাকান্দাইল চৌরাস্তা এলাকায় মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এসময় আন্দোলনকারীরা কয়েকটি পরিবহনের উপর হামলা চালিয়ে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটায়। খবর পেয়ে স্থানীয় এমপি গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক) উপস্থিত হয়ে আন্দোলনকারীদের দাবী মেনে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে শান্ত করেন। এমপির আশ্বাসের ফলে আন্দোলনকারীরা অবরোধ তুলে নেয়।

যশোর 
নিরাপদ সড়কের দাবিতে যশোরের দড়াটানায় অবস্থান ও বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। আজ সকালে শহরের দড়াটানা ট্রাফিক আইল্যান্ডে ও সরকারি কলেজের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় শহরে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শিক্ষার্থীরা নৌমন্ত্রীর পদত্যাগসহ সারাদেশে নিরাপদ সড়ক গড়ে তোলার দাবি জানায়।

বরিশাল 
ঢাকায় বাসচাঁপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর বিচারসহ নয় দফা দাবি আদায়ে বরিশালে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করছে শিক্ষার্থীরা। আজ বেলা ১১টার দিকে নগরীর চৌমাথা এলাকার ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক অবরোধ করে এ বিক্ষোভ মিছিল করে শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ কর্মসূচী চলাকালীন হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হলেও শিক্ষার্থীরা তাদের কর্মসূচী চালিয়ে যায়। পরে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে বিক্ষোভ কর্মসূচী স্থগিত করে মহাসড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেয় শিক্ষার্থীরা। -ডেস্ক