(শরীয়তপুর, দিনাজপুর২৪.কম) : পুলিশ পরিচয়ে শরীয়তপুরে ন্যাশনাল ব্যাংকের দুই কর্মকর্তাকে ২০ লক্ষ টাকাসহ অপহরণ করেছে দুর্বৃত্তরা। অপহৃত দুই ব্যাংক কর্মকর্তাকে অপহরণের প্রায় তিন ঘণ্টা পরে ঘটনাস্থল থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মাদারীপুরের শিবচর এলাকার আড়িয়াল খাঁ ব্রিজের নিচ থেকে উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জাজিরা থানা ও ন্যাশনাল ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, রবিবার দুপুর ১টার দিকে ন্যাশনাল ব্যাংকের জাজিরা উপেেজলার কাজিরহাট শাখা থেকে ২০ লাখ টাকা নিয়ে ব্যাংকের নড়িয়া শাখার জুনিয়র ক্যাশ অফিসার চান শরীফ খান ও অফিস সহায়ক উজ্জল মুন্সি একটি মোটরসাইকেলযোগে রওনা দেন। জাজিরার বিলাসপুরের ভাঙ্গা ব্রিজের নিকট পৌঁছলে একটি সাদা প্রাইভেটকারে থাকা ৫ যুবক মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। মোটরসাইকেলে থাকা চান শরীফ খান ও উজ্জল মুন্সিকে অস্ত্রের মুখে গাড়ি থেকে নামিয়ে পুলিশের পরিচয় দিয়ে হাতে হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে চোখ বেঁধে প্রাইভেটকারে উঠিয়ে নিয়ে যায়। তাদের বেদম মারধর করে। তাদের সাথে থাকা ২০ লাখ টাকা, ২টি মোবাইল সেট লুট করে নিয়ে যায়। এদিকে দীর্ঘ সময় তারা নড়িয়া ন্যাশনাল ব্যাংকের শাখায় না পৌঁছানোয় কর্তৃপক্ষ প্রশাসনকে অবহিত করে।
অপহরণকারীরা প্রায় ৩ ঘণ্টার পরে বিকেল ৪টার দিকে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলা পাঁচচর আড়িয়াল খাঁ ব্রিজের কাছে অপহৃত দুইজনকে গাড়ি থেকে ধাক্কা দিয়ে ব্রিজের ঢালে ফেলে দিয়ে চলে যায়। স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে ন্যাশনাল ব্যাংকের কাজির হাট শাখার ম্যানেজার আবদুর কাদেরকে খবর দেয়। পরে তাদের উদ্ধার করে জাজিরা থানায় নিয়ে আসে। নড়িয়া শাখার জুনিয়র ক্যাশ অফিসার চান শরীফ খান ও অফিস সহায়ক উজ্বল মুন্সিকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য জাজিরা থানায় আটক রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে জাজিরা থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।
এ ব্যাপারে ন্যাশনাল ব্যাংকের নড়িয়া শাখার জুনিয়র ক্যাশ অফিসার চান শরীফ খান বলেন, আমরা ন্যাশনাল ব্যাংকের কাজির হাট শাখা থেকে রবিবার দুপুরে ২০ লাখ টাকা নিয়ে নড়িয়া শাখায় যাচ্ছিলাম। পথিমধ্যে জাজিরার বিলাশপুর এলাকার ভাঙ্গা ব্রিজের নিকট পৌঁছলে সাদা রঙের একটি  প্রাইভেটকারে ৫ জন ছিনতাইকারী আমাদের গতি রোধ করে ঘিরে ফেলে এবং আমাদের হাতে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে তাদের গাড়িতে তুলে চোখ বেঁধে ব্যাপক মারধর করে গাড়িতে তুলে নেয়। এ সময় তারা নগদ ২০ লাখ টাকা ও ২টি মোবাইল সেট নিয়ে যায়। প্রায় তিন ঘণ্টা পরে আমাদের শিবচর এলাকার আড়িয়াল খাঁ ব্রিজের নিচে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়রা আমাদের উদ্ধার করে। আমরা তাদের মাধ্যমে জাজিরা থানায় চলে আসি।
এ ব্যাপারে ন্যাশনাল ব্যাংকের কাজীর হাট শাখার ফার্স্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার মোঃ ফরিদ উদ্দিন বলেন, আমাদের ব্রাঞ্চ থেকে ২০ লাখ টাকা উত্তোলন করে নড়িয়া শাখার জুনিয়র ক্যাশ অফিসার চান শরীফ খান ও অফিস সহায়ক উজ্জল মুন্সি মোটরসাইকেলে করে নিয়ে যাচ্ছিল। পরে দীর্ঘ সময় তারা নড়িয়া ব্রাঞ্চে না পৌছানোর কারনে আমরা উৎকণ্ঠায় পড়ি। পরে আমরা ওই ২ অফিসারের মুঠোফোনে কল করলে ফোন বন্ধ পাই। দীর্ঘ প্রায় ৩ ঘণ্টা পরে শিবচর এলাকা থেকে স্থানীয় লোকজন আমাদের ম্যানেজারকে ফোন করে জানান, ব্যাংকের দুইজন লোক ব্রিজের নিচে পড়ে আছে।  তাদের আমরা উদ্ধার করে নিয়ে আসি।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, টাকা বহনকারী দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে।(ডেস্ক)