(দিনাজপুর২৪.কম) সম্প্রতি ভারতের মধ্যপ্রদেশের দুই ব্যক্তি চীন থেকে দেশে ফিরেছেন। একজন চীনের উহান শহরে এমবিবিএস পড়ছিলেন। দিন দুই আগে ছাত্তারপুরে নিজের গ্রামে ফেরেন তিনি। সর্দি-কাশি-জ্বর, গলা ব্যথা নিয়ে তাকে গ্রামেরই একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। ভাইরাসের সংক্রমণ আঁচ করে তাকে ছাত্তারপুর জেলা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

ওই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন চীন-ফেরত আরো এক ছাত্র। তার বাড়ি জবলপুরে। তিনিও কিছুদিন আগেই উহান থেকে দেশে ফেরেন। তারপর জ্বর নিয়ে ভর্তি হন হাসপাতালে। তারপর শুরু হয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা। দেখা যায় একজনের রিপোর্ট পজিটিভ। অন্যজন সন্দেহের তালিকায়। পরে দুই যুবককে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখে চলছিল চিকিৎসা।

রবিবার রাতে দেখা গেল ওয়ার্ডের দু’টি বেড ফাঁকা। পাত্তা নেই দুই রোগীর। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে নিজেদের বাড়িতেও ফেরেননি তারা। তাহলে কোথায় গেলেন? চিন্তার ভাঁজ পড়েছে ডাক্তারদের কপালে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, নিখোঁজ দু’জনই ছাত্র।

এদিকে, রবিবার রাতে দু’জনের একসঙ্গে নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে বলে জানা যায়। -ডেস্ক