(দিনাজপুর ২৪ .কম)  বৃহষ্পতিবার (১৯ আগষ্ট-১৫) টিফিনের সময় লালমনিরহাট শহরের বত্রিশ হাজারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী সাব্বির হোসেনর টিফিনে বের হয়ে পাশের পুকরে ডুবে মৃত হয়েছে। এসময় ওই শিশুর সাথে থাকা অপর কয়েক শিশু বিদ্যালয়ের শিক্ষককে জানালেও শিক্ষকরা শিক্ষরা বলেন জানিনা। । বিদ্যালয় ছুটির পর শিশুর বই ক্লাশে পড়ে থাকলে শিক্ষকরা খবর দেয় তার বাবা মাকে, আপনার শিশু বই রেখে কোথায় যেন চলেগেছে। পরে বিকেল ৫টায় বিদ্যালয়ের পাশের ওই পুকুর থেকে ভেসে উঠে স্কুল ছাত্র সাব্বিরের লাশ। সাথে থাকা অপর শিশুরা বলে আমরা স্যারকে জানিয়েছি সাব্বির পুকুরে পড়ছে। স্যার আমাদের কথা শুনেনি। টিফিনের পর ক্লাশে ওই শিশু উপস্থিতত না থকলেও ক্লাশ শিক্ষক করেনি কোন কর্ণপাত।এঘটনায় বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অবহেলার কারনে তৃতীয় শ্রেণীর ওই শিশুর অকালে জীবন গেলো স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। নিহত সাব্বির আদিতমারী উপজেলার বত্রিশ হাজারী তালুক খুটামারা এলাকার মায়েজ উদ্দিনের ছেলে। আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আখতার হোসেন বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। শিশুর অভিভাবক অভিযোগ করলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। এব্যাপারে ওই বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষকরা জানান তারা কিছুই জানেনা। টিফিনের পর ক্লাশে খুজে পাওয়া যায়নি। এঘটনায় এলাকাসহ বিদ্যালয়ের অপর শিক্ষার্থীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তবে শোকের ছায়া নেমে আসলেও শিক্ষকদের প্রতি স্থানীয়দের মাঝেক্ষোভ বিরাজ করছে। (ডেস্ক)