-সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) আরো ১২৫ বাংলাদেশি কর্মীকে ফেরত পাঠিয়েছে সৌদি আরব। শুক্রবার রাত ১১টা ২০ মিনিটে সৌদি এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তারা দেশে আসেন।

এ নিয়ে চলতি মাসেই ২৬১৫ জনকে ফেরত পাঠিয়েছে সৌদি আরব। বরাবরের মতো শুক্রবারও দেশে ফেরা কর্মীদেরকে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের সহযোগিতায় ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম থেকে খাবার-পানিসহ নিরাপদে বাড়ি পৌঁছানোর জন্য জরুরি সহায়তা প্রদান করা হয়।

দেশে ফেরা নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজারের আফজাল (২৬) মাত্র আড়াই মাস আগে ৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা খরচ করে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। বৈধ আকামাও ছিল তার। কয়েকদিন আগে রুম থেকে বাজার করতে বের হয়েছিলেন। কিন্তু রাস্তা থেকে তাকে ধরে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে সৌদি আরবের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

আফজালের মতো ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কামরুল ৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা খরচ করে আড়াই মাস আগে গিয়েছিলেন সৌদি আরব। কিন্তু তিনিও শূন্য হাতে দেশে ফিরতে বাধ্য হয়েছেন।

কর্মীদের এভাবে ফেরত আসার বিষয়ে ব্র্যাক অভিবাসন কর্মসূচির প্রধান শরিফুল হাসান বলেন, যারা কয়েক মাস আগে গিয়েছিলেন তাদের কেউই খরচের টাকা তুলতে পারেননি। বৈধ আকামার পরও ধরে ধরে দেশে পাঠানো হচ্ছে। তারা সবাই ভবিষ্যত নিয়ে এখন দুশ্চিন্তায়।

আমরা আশা করছি, তিনদিন পর সৌদি আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের যে যৌথ বৈঠক হবে- সেখানে নারী কর্মীদের পাশাপাশি পুরুষ কর্মীদের বিষয়টি নিয়েও আলোচনা হবে। বিশেষ করে ফ্রি ভিসার নামে প্রতারণা বন্ধ করতে দুই দেশকে কাজ করতে হবে। -ডেস্ক