ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গত ১৫ জুলাই চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেলেও শুক্রবার রাতে তাকে প্রথমবারের মতো প্রকাশ্যে আসতে দেখা গেছে। দলের কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুলসহ অন্য নেতাদের ফেইসবুকে ভাইরাল হওয়া একটি ছবিতে খালেদা জিয়াকে লন্ডনের একটি শপিং মলে কেনাকাটা করতে দেখা গেছে।

এ সময় সঙ্গে ছিলেন তার বড় ছেলে এবং দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও পুত্রবধূ জোবায়দা রহমান। লন্ডনে অবস্থানের পর কোনো ঘরোয়া সমাবেশেও অংশ নেননি তিনি।

শারীরিক অবস্থা অনুকূলে না থাকায় তারেকের পরামর্শেই পুরোপুরি বিশ্রামে আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন। তবে সময় মতো ডাক্তারের কাছে গিয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী।
বর্তমানে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে কিছুটা ভালো বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির এক নেতা জানান, লন্ডনে তারেক রহমানের যে বাসায় খালেদা জিয়া রয়েছেন সেখানে দলের কোনো পর্যায়ের নেতাকর্মীদেরকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। চেয়ারপারসনের শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করেই এ সিদ্ধান্ত।

উল্লেখ্য, চোখ ও পায়ের চিকিৎসার জন্য গত ১৫ জুলাই লন্ডন যান খালেদা জিয়া। চিকিৎসার জন্য এ সফর বলা হলেও তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে বেশ আগ্রহ দেখা দেয়। ছেলের সঙ্গে প্রবাসেই খালেদা জিয়া দেখা করছেন গত এক দশক ধরে।

এই সফরেও খালেদা ছেলে তারেক রহমানের বাসায় আছেন। সেখানে তারেকের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান, মেয়ে জাইমা রহমান ছাড়াও খালেদা জিয়ার প্রয়াত ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শামিলা রহমান সিঁথি, তার দুই মেয়ে জাহিয়া রহমান ও জাফিয়া রহমানও রয়েছেন।

এর আগে ২০১৫ সালে ১৫ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়া লন্ডন গিয়েছিলেন। তখন ছেলে তারেক রহমান ও তার স্ত্রী-সন্তান ও প্রয়াত ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী ও দুই সন্তানের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করে দেশে ফেরেন খালেদা জিয়া। -ডেস্ক