(দিনাজপুর২৪.কম) লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চরশাহী ইউনিয়নের দাসেরহাট যুবলীগ নেতা জামাল উদ্দিনের বাসায় ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী। আহত অবস্থায় ওই স্কুল ছাত্রীকে শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় পুলিশ উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জামাল উদ্দিন চরশাহী ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক ও দাসেরহাট বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সহ-সাধারন সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। জামাল উদ্দিন একই উপজেলা চরশাহীর গোবিন্দপুর গ্রামের আবদুল হাসিমের ছেলে।
পুলিশ জানায়, শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় ওই স্কুল ছাত্রীকে কৌশলে দাসেরহাট বাজারে ভাড়া বাসায় ডেকে নেয় জামাল উদ্দিন। মুখ বেধে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে জামাল উদ্দিন। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই স্কুল ছাত্রীকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় সে। ওই স্কুল ছাত্রীর চিৎকারে বাজারের ব্যবসায়ীরা এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় রাত সাড়ে ১০টায় উদ্ধার করে দাসেরহাট তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ওই ছাত্রীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে সে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে জামাল উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে দাসেরহাট মাছ বাজার এলাকায় পরিবার নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকেন। স্ত্রী বাসায় না থাকার সুবাদে ওই স্কুল ছাত্রীকে কৌশলে ডেকে নিয়ে বাসায় এ ধর্ষণের ঘটনায় ঘটায় সে।
সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, ধর্ষণের শিকার হয়ে আহত অবস্থায় স্কুল ছাত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে আসে পুলিশ। পরে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে শারিরীক ও মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে ওই স্কুল ছাত্রী। রোববার সকালে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা পর রিপোর্ট দেয়া হবে।-ডেস্ক