(দিনাজপুর২৪.কম) কুমিল্লা সীমান্তে মাদকদ্রব্য উদ্ধার করতে গিয়ে ভারতীয়দের হাতে আটক হওয়া র‌্যাবের ৩ সদস্য ও তাদের ২ নারী সোর্সকে বিজিবি-বিএসএফ-এর পতাকা বৈঠক শেষে প্রায় ১০ ঘণ্টা পর ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। গতকাল সকাল ৭টার দিকে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী শশীদল ইউনিয়নের আশাবাড়ি উত্তরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এরা হলেন- র‌্যাবের কনস্টেবল আবদুল মতিন, কনস্টেবল রিগেন বড়ুয়া, সৈনিক ওয়াহেদুল ইসলাম এবং দুই নারী সোর্স লিজা ও তার খালা।

বিকাল ৫টার দিকে আশাবাড়ি সীমান্ত দিয়ে তাদের হস্তান্তর করা হয়। র‌্যাব-১১ সিপিসি-২ এর ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মুহিতুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, র‌্যাব-১১ এর সিপিসি-২ এর একটি দল বৃহস্পতিবার সকালে কুমিল্লা থেকে আশাবাড়ি এলাকায় মাদক উদ্ধার অভিযানে যায়। এসময় মাদক চোরাকারবারীদের ধাওয়ার একপর্যায়ে র‌্যাবের কয়েক সদস্য অসাবধানতাবশত ভারতীয় সীমান্তের অভ্যন্তরে ঢুকে পড়ে। এতে ভারতীয় নাগরিকরা তাদের আটকপূর্বক তাদের ব্যবহৃত একটি পিস্তল, ৭টি বুলেট ও অন্যান্য সামগ্রীসহ ভারতীয় বিএসএফ-এর নিকট হস্তান্তর করে। এদিকে খবর পেয়ে কুমিল্লা থেকে র‌্যাব ও বিজিবির পদস্থ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে আটককৃতদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেন। বিকাল ৪টায় শুরু হয় বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক।

বৈঠক শেষে বিকাল ৫টায় তাদেরকে ফেরত দেয়া হয়। বৈঠকে ভারতের ৭৪-বিএসএফ এর পরিদর্শক আর. জে মিঠু ও বাংলাদেশের সংকুচাইল বিওপির কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার নুরুল ইসলামসহ বিএসএফ-বিজিবির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।