ronaldo-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) বেশিদিন একা থাকার মানুষ নন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে থাকাকালে তো ‘লেডি কিলার’ নাম পেয়ে গিয়েছিলেন। ২০০৯ সালে স্পেনের ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেয়ার পর তার সে ‘সুনাম’ কিছুটা কমে। কিন্তু একেবারে শেষ হয়ে যায়নি। রাশিয়ার মডেল ইরিনা শায়েকের সঙ্গে দীর্ঘদিন ছিলেন একই ছাদের নিচে। তখন নারীঘটিত ঘটনা কম শোনা যেত। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে ইরিনার সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় পর্তুগিজ এ উইঙ্গারের। এরপর কিছুদিন ছিলেন ঠাণ্ডা। তবে সেটা বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। এরই মধ্যে বেশ কয়েকজন নারীর সঙ্গে তাকে একান্তে দেখা গেছে। খবরের শিরোনাম হয়েছে ওই নারীর নাম ও পরিচয়। বছরের শুরুর দিকে তার নাম জড়ায় মডেল পাউলো সুয়ারেজের সঙ্গে। কলম্বিয়ার এ মডেল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রোনালদোর সঙ্গে তার তোলা কিছু অন্তরঙ্গ ছবি প্রকাশ করে দেন। দাবি করেন- রোনালদোর সঙ্গে তার কিছু চলছে। এর কিছুদিন বাদে রোনালদোর নামের সঙ্গে জড়ায় সাবেক মিস স্পেন করদেরো ফেরারের সঙ্গে। দুজনে ডুবেডুবে পানি খাচ্ছেন বলে স্পেনের মিডিয়ায় মাঝেমধ্যে খবর আসে। সে ঘটনার রেশ না কাটতেই রোনালদোর নতুন প্রেমিকার খবর জানা গেলো। গত মঙ্গলবার পর্তুগালের স্পোর্টিং লিসবনের বিপক্ষে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ম্যাচ খেলতে যান রোনালদো। সেখান থেকে স্পেনে না ফিরে তিনি যান ফ্রান্সে। রাজধানী প্যারিসের ডিজনিল্যান্ডে সময় কাটান রিয়াল মাদ্রিদের এ তারকা। আর সেখানেই তাকে দেখা যায় নতুন সঙ্গিনীর সঙ্গে। বেশ সতর্ক ছিলেন রোনালদো। তাকে যেন কেউ চিনতে না পারে সেজন্য পুরো শরীর শীতের কাপড় দিয়ে ঠেকে রাখেন। মাথায় দেন বেসবল ক্যাপ। তারপর সেটা ঢাকেন হুডি দিয়ে। এমন ছদ্মবেশ ধারণ করে ঘুরতে থাকেন নতুন প্রেমিকা জর্জিনা রদ্রিগেজের সঙ্গে। একে অন্যের হাত ধরে সবার সামনে হাঁটেন। বেশ কয়েকবার রোনালদোর বাহুডোরে দেখা যায় জর্জিনাকে। এমন কি প্রকাশ্যে একে অন্যকে জড়িয়ে ধরে ঠোঁটে ঠোঁট রাখেন রোনালদো-জর্জিনা। কোন দৃশ্যই এড়ায়নি পাপারাজ্জিদের ক্যামেরা। এ ছবিগুলো প্রকাশ হওয়ার পর বৃটিশ ট্যাবলয়েড ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোলপাড়। জর্জিনার পরিচয় জানার জন্য ব্যকুল সবাই। আসলে স্পেনেরই মেয়ে জর্জিনা। মাদ্রিদের বিখ্যাত ব্র্যান্ড গুচি স্টোরের সঙ্গে তার পেশাদারি সম্পর্ক। ডসলি অ্যান্ড গ্যাবানার সঙ্গেও তার সম্পর্ক আছে। আর এ প্রতিষ্ঠানের একটি অনুষ্ঠানে গিয়েই নাকি তার সঙ্গে রোনালদোর পরিচয় হয়। এরপর জার্জিনাকে বেশ কয়েকবার রিয়ালের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর ভিআইপি গ্যালারিতে বসে খেলা দেখতে দেখা গেছে। রোনালদোর জন্য গলা ফাটাতে দেখা গেছে তাকে। কিন্তু তখন অনেকে তার পরিচয় জানতে না পারলেও প্যারিস ঘটনার পর সবার কাছে বিষয়টি স্পষ্ট। -ডেস্ক