ছবি : ভিডিও থেকে নেওয়া

(দিনাজপুর২৪.কম) করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার নামে ভুয়া সনদ প্রদান করার ঘটনায় ঢাকার রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে জড়িতদের ক্রসফায়ারে দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুন-অর রশীদ। আজ বুধবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে বিএনপির এই সাংসদ পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে সাংসদ হারুন বলেন, ‘আপনি মাদকাসক্ত-মলম পার্টির লোককে ধরে ক্রসফায়ার দিচ্ছেন। অথচ এত বড় অপকর্ম করলো এখন পর্যন্ত সে গ্রেপ্তার হয়নি। সে কোথায় আছে?’

বিএনপির এই সাংসদ বলেন, ‘এই হাসপাতালের যারা পরিচালনা বডি, যারা কর্তৃপক্ষ তাদের অগোচরেই কি এ সমস্ত অপকর্ম হয়েছে?’

হারুন বলেন, ‘মানুষের জীবন মরণের সংকটময় মুহূর্তে সরকারের জায়গা থেকে র‍্যাব অভিযান চালিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নিয়েছে এতে আমরা সন্তুষ্ট নই, এই রকম ব্যক্তিদের আমি মনে করি বাঁচিয়ে রাখা উচিত নয়, এদেরকে ক্রসফায়ার করে দেওয়া উচিত।’

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘বেসরকারিভাবে করোনা টেস্টের লাইসেন্স যাদের দেওয়া হয়েছে, সেগুলোতে অনিয়ম-দুর্নীতি হয়েছে। যারা আবেদন করেছিল সেখানে দলীয় বিবেচনা করা হয়েছিল বলেই, যাদের সক্ষমতা আছে করোনা টেস্টের তাদের অনেককেই লাইসেন্স দেওয়া হয়নি।’

বিএনপির এই এমপি আরও বলেন, ‘রাজধানী ঢাকার মতো জায়গায় রিজেন্ট হাসপাতাল করোনা চিকিৎসার ভুয়া প্রত্যয়নপত্র দিয়েছে। তারা আবার সরকারের কাছেও টাকা দাবি করেছে।’ -ডেস্ক