রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেড। -পুরোনো ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) করোনাভাইরাসের টেস্ট না করে সার্টিফিকেট প্রদানসহ বিভিন্ন অভিযোগে রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা দায়ের করেছে র‌্যাব।

র‌্যাবের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি সুজয় সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সুজয় সরকার জানান, মঙ্গলবার রাতে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং- ০৫।

তিনি জানান, এই মামলায় আসামি ১৭ জন।  তাদের মধ্যে রিজেন্টের চেয়ারম্যান শাহেদ সহ ৯ জনকে পলাতক হিসেবে এজাহারে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুরে অবস্থিত দুই শাখাই সিলগালা করে দেয়। এরপর স্বাস্থ্য অধিদপপ্তের পক্ষ হাসপাতালটি বন্ধ রাখারা নির্দেশ দেওয়া হয়।

তার আগে গত সোমবার উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা না করেই নেগেটিভ বা পজিটিভ রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালায় ‌র‌্যাব। ওই অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।

অভিযানের পর তিনি বলেন, ‘অভিযানকালে ২৮টি রিপোর্ট হাতেনাতে পাওয়া গেছে। যেগুলোর নমুনা আসলে পরীক্ষার জন্য যায়ইনি। সবগুলোই ভুয়া রিপোর্ট।’

‘এই নমুনা পরীক্ষার নামে প্রত্যেকের কাছে থেকে তারা ৩ হাজার ৫০০ টাকা করে নিয়েছে। এভাবে প্রায় ৩ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে রিজেন্ট হাসপাতাল’, যোগ করেন সরোয়ার আলম। -ডেস্ক